এম,এ সালাম, হেড অব নিউজ (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুর রেল স্টেশনের দক্ষিণে ডর্ক/ওয়াশফিড এখানে এক সময় একতা, দ্রুতযান, দোলনচাঁপা এক্সপ্রেস এ ট্রেনগুলি সেখানে ধোয়া, ট্রাংকিতে পানি রিজার্ভ করা, রেলওয়ে যন্ত্রাংশ চেক করা হত। বর্তমানে এই কাজগুলি পঞ্চগড় থেকেই করা হয়। ফলে অকেজো হয়ে পড়ে এই ডর্ক/ওয়াশফিড। ডর্ক/ওয়াশফিডের পাশেই রেলওয়ে গুডস গোডাউন। গোডাউনের পাশে মাল ট্রেনে গাড়িতে মালামাল উঠানামা করা হয়। গোডাউন এবং রেলের মাঝখানে বাঁশ খুটি দিয়ে বসবাস করছিল তারা। দিনাজপুর রেল কর্তৃপক্ষ বার বার তাদের বলেছেন এটি গুরুত্বপূর্ণ স্থান এটি থাকার জায়গা নয়। এখান থেকে আপনারা অন্য কোথাও চলে যান। কারণ মাল বাহি ট্রেনে মালামাল এখানে উঠানামা করা হয় তাদের কারণে মালামাল উঠানো ও নামানো অসম্ভব হয়ে যাওয়ায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের জন্য উর্দ্ধতন রেলওয়ে কর্মকর্তাদের অবগত করেন দিনাজপুরের দায়িত্বরত বাংলাদেশ রেলওয়ে দিনাজপুর স্টেশন সুপারিটেনডেন্ট মোঃ জিয়াউর রহমান জিয়া। বাংলাদেশ রেলওয়ে উর্দ্ধতন কর্মকর্তা বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) তাপস কুমার, বিভাগীয় পরিবহন (ডিটিএস) ট্রাফিক সুপারিটেনডেন্ট মোঃ আরিফুজ্জামান গত ১৯ শে আগষ্ট ২০২০ইং সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। গত বৃহঃস্পতিবার ২০শে আগষ্ট ২০২০ইং তারিখে সকাল আনুমানিক ১১.৩০ সময় উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের নির্দেশে অবৈধ উচ্ছেদ পরিচালনা করা হয়। পরিচালনায় অংশগ্রহন করেন বাংলাদেশ রেলওয়ে দিনাজপুরের উর্দ্ধতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী (পুরো/দিনাজপুর) মোঃ তারিকুল ইসলাম, দিনাজপুর রেলওয়ে স্টেশন সুপারিটেনডেন্ট মোঃ জিয়াউর রহমান জিয়া বাংলাদেশ রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী (আরএনবি) ও রেলওয়ে জিআরপি পুলিশ দিনাজপুর ।