(দিনাজপুর২৪.কম) পঞ্চম বারের মতো কোন বহুজাতিক ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেও ফিরে আসতে হলো বাংলাদেশকে।
রবিবার রাতে নিদাহাস টি টুয়েন্টি ট্রফির ফাইনালে জয়ের সম্ভাবনা তৈরি করেও টানটান উত্তেজনার ম্যাচে ভারতের কাছে ৪ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ।
সে সময় শ্রীলঙ্কার মাঠেই ছিলেন বাংলাদেশের ক্রীড়া সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম রনি।
তিনি বলছেন, ”হয়তো বাংলাদেশের যে মেন্টাল ব্লকটা (মানসিক বাধা) আছে, সেটা এখনো ওভারকাম করতে পারছে না। সাফল্য এবং ব্যর্থতার মাঝে যে ছোট একটি লাইন রয়েছে, সেটা সে অতিক্রম করতে পারছে না।”
পুরো ম্যাচ জুড়ে বাংলাদেশ সমানে সমানেই লড়েছে। ম্যাচের ভাগ্য গড়েছে শেষ দুই ওভার বলছেন, মিঃ ইসলাম।
বাংলাদেশের পরাজয়ের জন্য কোন কারণটি সবচেয়ে দায়ী?
ক্রীড়া সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম বলছেন, এজন্য হয়তো মানসিক চাপটাকেই দায়ী করতে হবে। হয়তো মানসিক চাপটাকে বাংলাদেশে শেষ পর্যন্ত নিতে পারেনি।
এর বাইরেও আরো কয়েকটি বিষয় কাজ করেছে।
তিনি বলছেন, ব্যাটিংয়ের শুরুটা ভালো হয়নি। সাব্বির অসাধারণ একটি ইনিংস করেছে, মিরাজ ভালো খেলেছে,তারপরেও এই উইকেটে বাংলাদেশের ১০/১৫ রান কম ছিল।
বোলিংয়ে বোলাররা চেষ্টা করেছে, কিন্তু শেষদিকে সেই দাবিটা মেটাতে পারেননি।

১৯তম ওভার করেন রুবেল হোসেন। সেই এক ওভারেই ভারত ২২ রান তুলে নিয়েছে।
এ প্রসঙ্গে আরিফুল ইসলাম বলছেন, রুবেল গোটা ম্যাচে অসাধারণ বোলিং করেছে।

কিন্তু এই ওভারটিতে এসেই ভারত জয়ের দিকে এগিয়ে গেছে।

তবে এ জন্য আমি দায়ী করবো মানসিকতাকে।

ভারতের যে মানসিকতা ছিল, ভারত জানে এই চাপের মধ্যে কিভাবে মাথা ঠাণ্ডা রাখতে হয়, কিভাবে নার্ভ ধরে রাখতে হয়, বাংলাদেশ সেই ব্যাপারটাকে হয়তো এখনো ওভারকাম করতে পারছে না।

তিনি বলছেন, কোন একটা ম্যাচের ফাইনালে যদি সেটা কাটিয়ে উঠতে পারে, তখন হয়তো তাদের সেই আত্মবিশ্বাসটা আসবে।

ভারতের এই দলটি প্রথম সারির দল নয় বলে বলা হচ্ছে। তাদের কাছে এই পরাজয়টা কিভাবে দেখা হবে?
এ প্রসঙ্গে মিঃ ইসলাম বলছেন, ভারত এই টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে, তারা শ্রীলঙ্কাকেও হারিয়েছে, সেটাও বলে দিচ্ছে এই দলটা কতটা শক্তিশালী।

দ্বিতীয় দল হলেও তাদের বোলিং ব্যাটিং সব দিকেই সমন্বয় ছিল। তাদের দুর্বলতার জায়গা খুব একটা ছিল না।

ম্যাচ শেষে কাউকেই দায়ী করেননি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। সাকিব বলেছেন, ভাগ্যটাই পক্ষে ছিলনা।

টিটোয়েন্টিতে এতদিন বাংলাদেশের ভালো পাওয়ার হিটার ছিল না। এবার মুশফিক, মাহমুদউল্লাহ সেই অভাব অনেকটাই ঘুচিয়ে দিয়েছেন।

আরিফুল ইসলাম বলছেন, আমি মনে করি, এখন বাংলাদেশের নতুন একটা অধ্যায় শুরু হবে এই টুর্নামেন্ট দিয়ে। -ডেস্ক

সুত্র- বিবিসি