(দিনাজপুর২৪.কম) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আজকের তরুণ প্রজন্ম দেশপ্রেমে উদ্ধুদ্ধ হয়ে আগামী দিনে দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশ গড়ে উঠবে। বিজয়ী জাতি হিসেবে আমরা মাথা উঁচু করে চলবো। বাংলাদেশের অগ্রগতির যাত্রা অব্যাহত থাকবে। আজ রোববার রাজধানীর ওসমানী মিলনায়তনে আয়োজিত স্বাধীনতা পদক পুরস্কার-২০১৮ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
স্ব স্ব ক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রাখায় ১৮ জন বিশিষ্ট ব্যক্তির হাতে স্বাধীনতা পদক পুরস্কার-২০১৮ তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় তিনি দেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত করার দীর্ঘ যাত্রার কথা তুলে ধরে বলেন, ১৯৭১ সালে দেশ স্বাধীন হওয়ার পরে একটি যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশকে মাত্র সাড়ে তিন বছরের মধ্যে স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

কিন্তু সেই স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হতে আমাদের ৪৩ বছর সময় লেগে গেলো, এটা আমাদের জন্য সত্যিই দুর্ভাগ্যের। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা না করা হলে দেশ আরো অনেক আগেই উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হতো।
দেশে উন্নয়নের মাত্রা তুলে ধরতে প্রধানমন্ত্রী তার বক্তৃতায় ২০০৫-০৬ অর্থবছরের সাথে বর্তমান অর্থবছরের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির তুলনামূলক আলোচনা করেন। এছাড়া উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার জন্য মাথাপিছু আয়, হিউম্যান রিসোর্স ইনডেক্স, ও ইকোনোমিক ভার্নালিবিটি ইনডেক্স এর যে লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করার শর্ত ছিল, তা বেশ বড় ব্যবধানে সফলভাবে পূরণ করতে সক্ষম হয়েছেন বলেও উল্লেখ করেন।
বাংলাদেশের অগ্রগতির যাত্রা অব্যাহত রাখার আশাবাদ প্রকাশ করে তিনি বলেন, আমরা বাংলাদেশকে উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। ২০২১ সালের মধ্যে দেশকে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে উন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে চাই। -ডেস্ক