(দিনাজপুর২৪.কম) দুটি গানের শুটিং ছাড়া পাগল মানুষ ছবির সব কাজই শেষ হয়েছিল। কিন্তু পরিচালক এম এম সরকারের আকস্মিক মৃত্যুতে আড়াই বছর আগে থেমে যায় ছবির কাজ। ছবির প্রধান অভিনেত্রী শাবনূরও চলে যান অস্ট্রেলিয়ায়। আসা-যাওয়ার মধ্যে থাকলেও কোনোভাবেই শুটিংয়ের শিডিউল দিতে পারছিলেন না তিনি। শাবনূরের এখন সময় মিলেছে আর পরিচালকের হাল ধরেছেন এম এম সরকারের শিষ্য বদিউল আলম খোকন। ফলে কদিনের মধ্যেই ছবির কাজ শেষ হবে। পাগল মানুষ ছবির শুটিংয়ের জন্য দীর্ঘদিন পর ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেন শাবনূর। ছবিতে শাবনূরের বিপরীতে অভিনয় করছেন শায়ের খান।
শাবনূর বলেন, ‘বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া যাওয়া-আসার কারণে কোনোভাবে শিডিউল মেলাতে পারছিলাম না। মাঝে অবশ্য দেশে ফিরে মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের কিছু আশা কিছু ভালোবাসা ছবির কাজ করি। ছবির কাজ শেষে আবার সিডনি চলে যাই। এরপর বিয়ে ও সন্তানের কারণে আর শুটিং করতে চাইনি। এবার দেশে আসার পর মনে হলো ছবিটির কাজ শেষ করে ফেলা উচিত। তাই সময় বের করে কাজটি শেষ করছি।’
পাগল মানুষ ছবির মধ্য দিয়ে অনেক দিন পর এফডিসিতে শুটিং করছেন শাবনূর। কেমন লাগছে এফডিসির পরিবেশ—জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘খুব খারাপ লাগছে। আমরা যখন কাজ করেছি, তখন পুরো এফডিসিতে উৎসবের আমেজ ছিল। এখন তো এফডিসিতে ঢুকলেই মনে হয়, কোথায় এলাম!’
পাগল মানুষ নিয়ে বদিউল আলম খোকন বলেন, ‘আমার চলচ্চিত্র পরিচালক হওয়ার পেছনে এম এম সরকারের অবদানের শেষ নেই। তাঁর শিষ্য হিসেবে মনে করেছি ছবিটির কাজ শেষ করা আমার দায়িত্ব। গুরুর অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে পারছি ভেবে ভালো লাগছে।’ -ডেস্ক