(দিনাজপুর২৪.কম) বর্তমান সরকার যদি মানুষের ভোটাধিকার নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে থাকে; তবে তাদের জন্য করুণ পরিণতি অপেক্ষা করছে বলে মন্তব্য করেছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম। তিনি বলেছেন, পাকিস্তানীরা আমাদের ভোটাধিকারের প্রতি সম্মান দেখায়নি বলেই ১৯৭১ এ যুদ্ধ করে আমরা বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছিলাম। আজকেও বাংলাদেশের মানুষ ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত। একাত্তরে বাংলাদেশের মানুষের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠায় ভারত যেমন যথাযথ বন্ধুর মতো আচরণ করেছে, এখনও গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশের মানুষের পাশেই থাকবে বলে আমরা আশা করি।
শান্তির দাবিতে অবস্থান কর্মসূচীর ১৩২ তম দিনে রোববার পাকুন্দিয়া কোর্ট বিল্ডিং চত্বরে অবস্থানকালে সংহতি প্রকাশ করতে আসা বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।
কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, ভারতের জননন্দিত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জনসমর্থনহীন সরকারের ক্ষমতায় টিকে থাকার সহায়ক ভূমিকা পালন করবেন না বলে আমরা বিশ্বাস করি। ভারতীয় জনতা পার্টি যার নেতৃত্বের কারিশমায় জনগণের সমর্থন নিয়ে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করেছে তিনি নিশ্চয়ই বাংলাদেশের জনগণের হৃদয়ের আকুতি অনুধাবন করতে সক্ষম হবেন।
পাকুন্দিয়ায় অবস্থানকালে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের যুগ্ম-সম্পাদক ইকবাল সিদ্দিকী, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের কিশোরগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি আমিনুল ইসলাম তারেক, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সুফিয়ান, ছাত্র আন্দোলনের আহবায়ক রিফাতুল ইসলাম দীপ, ছাত্রনেতা মেহেদী সম্রাট, যুবনেতা ফারুক আহমেদ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ তার সাথে অবস্থান করেন। –(ডেস্ক)