(দিনাজপুর২৪.কম) পূর্ব পাকিস্তানের মানুষকে তাদের অধিকার দেয়া হয়নি। এটিই ছিল বাংলাদেশ সৃষ্টির মূল কারণ বলে জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

শনিবার তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) পার্টির পাঞ্জাব সরকারের একশ দিনের অর্জন উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা জানান।

তিনি বলেন, পাক জাতির পিতা রূপকল্পের মূলভিত্তি ছিল ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের সমানাধিকার দেয়া। সংখ্যালঘুদের সহায়তা করতে হবে আমাদের। কায়েদে আজম মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ যেভাবে তাদের সম অধিকারের প্রতি জোর দিয়েছিলেন, ঠিক সেভাবে তাদের রক্ষা করতে হবে।

সংখ্যালঘুদের ওপর কেমন আচরণ করতে হয়, ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে তাও দেখিয়ে দেবেন বলে জানিয়েছেন ক্রিকেট তারকা থেকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়া ইমরান খান।

তিনি বলেন, দুর্বলের প্রতি যদি ন্যায়বিচার করা না হয়, তবে তা কেবল বিদ্রোহেই রূপ দিতে পারবে। পূর্ব পাকিস্তানের লোকজনকে তাদের অধিকার দেয়া হয়নি। বাংলাদেশ সৃষ্টির পেছনে মূল কারণ ছিল এটিই।

গরু-হত্যা নিয়ে সহিংসতা নিয়ে ভারতের প্রবীণ অভিনেতা নাসিরুদ্দিন শাহের একটি মন্তব্যকে ঘিরে ইমরান খান সংখ্যালঘুদের অধিকারের কথা বলেন।

এ মাসে ভারতের উত্তর প্রদেশের বুলান্দশার জেলায় গরু হত্যা নিয়ে সহিংস ঘটনা ঘটে। এতে পুলিশসহ দু’জন নিহত হন। এই মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্কের মুখে পড়েন নাসিরুদ্দিন শাহ।

নাসিরুদ্দিন শাহ এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ভারতে একজন পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যুর চেয়ে একটি গরুর মৃত্যু বেশি গুরুত্ব পায়।

ইমরান খান বলেন, সংখ্যালঘুরা নিরাপদ বোধ করছে- এমনটা নিশ্চিত করবে তার সরকার। নতুন পাকিস্তানে তাদের সুরক্ষা ও সমঅধিকার দেয়া হবে।

নাসিরুদ্দিন শাহের মন্তব্য উল্লেখ করে সাবেক এই ক্রিকেট তারকা বলেন, সংখ্যালঘুদের কেমন আচরণ করতে হয়, মোদি সরকারকে তা দেখিয়ে দেব। ভারতে সংখ্যালঘুদের সমান নাগরিক অধিকার দেয়া হচ্ছে না। -ডেস্ক