(দিনাজপুর২৪.কম) টানা ৫ বছরের বেশি সময় ধরে সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় দায়িত্ব পালন করে ঘুষ-দুর্নীতি ও লুটপাট, মামলা এবং হুমকি-ধামকিসহ নানা ঘটনায় বেশ আলোচিত হয়ে উঠেছেন পিআইও নুরুন্নবী সরকার। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকবার খবরের শিরোনাম হয়েছেন তিনি। ফের একবার সেই একই কারণে আলোচনায় তিনি।

ঈদসহ যেকোনো ধর্মীয় আর সামাজিক উৎসবে চাকরিক্ষেত্রে উপস্থিত! সরকারি আর সাপ্তাহিক ছুটির দিনেও ছিলেন প্রকল্প এলাকা পরিদর্শনে। মুখে নয় নথিপত্রে বছরের ৩৬৫ দিন অফিস করার দাবি সুন্দরগঞ্জের এই সাবেক প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার। বছরের ৩৬৫ দিন পরিদর্শন দেখিয়ে সরকারি কোষাগার থেকে লাখ লাখ টাকা ভ্রমণ বিল তুলে নিয়েছেন এই সরকারি কর্মকর্তা।

উন্নয়ন কাজ তদারকিতে প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করতে হয় সরকারি কর্মকর্তাদের; যা কর্মদিবসে হয়। কিন্তু গাইবান্ধায় বছরের ৩৬৫ দিন প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন দেখিয়ে সাড়া ফেলেছেন সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সাবেক পিআইও নুরুন্নবী সরকার।

বদলির আগে গত একবছরে সরকারের উন্নয়ন প্রকল্প পরির্দশন দেখিয়ে লাখ টাকা ভ্রমণ ভাতা তুলেছেন এই সরকারি কর্মকর্তা। ওই বিলে সাপ্তাহিক ছুটির দিন ছাড়াও ঈদসহ সব উৎসবের দিনে প্রকল্প এলাকা পরিদর্শনের উল্লেখ করেন তিনি।

অভিনব দুর্নীতির মাধ্যমে কোষাগার থেকে ৫ বছরে মোটা অংকের টাকা তুলে নতুন রেকর্ড গড়েছেন সাবেক পিআইও নুরুন্নবী সরকার। এই অস্বাভাবিক এবং ভুয়া ভ্রমণ বিল অনুমোদনও করেন জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা।

এরআগে, বিল ভাউচার ছাড়াই ২০১৭-১৮ অর্থবছরে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের বরাদ্দ থেকে প্রায় সাড়ে ৪ কোটি টাকা অগ্রিম বিল উত্তোলন করেন নুরুন্নবী সরকার। সাবেক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ তদন্ত করতে চান জেলা প্রশাসক।

বদলির পর নতুন কর্মস্থল সন্দ্বীপে যোগ দেননি নুরুন্নবী সরকার। উল্টো বদলির কারণ জানতে চেয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের সচিব, মহাপরিচালক ও গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকসহ ৭ জনকে পাঠিয়েছেন উকিল নোটিশ।

এরআগে গত ২৮ সেপ্টেম্বর দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর তাকে বদলির আদেশ দেয়। আর ১৬ অক্টোবরের মধ্যে স্বন্দ্বীপ উপজেলায় যোগদান করতে বলা হয়েছিল পিআইও নুরুন্নবীকে। -ডেস্ক