(দিনাজপুর২৪.কম) প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহা বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ স্বাধীন করে দিয়েছিলেন বলে তিনি এই পদে যেতে পেরেছেন। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় মৌলভীবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধান বিচারপতি এ কথা বলেন।

এস কে সিনহা বলেন, প্রতি বছর কয়েক হাজার মেধাবী ছেলেমেয়ে বিদেশে গিয়ে উচ্চ শিক্ষা নিচ্ছে। পরবর্তী সময়ে সেখানে তারা মেধার স্বাক্ষর বহন করে চাকরি ও নাগরিকত্ব গ্রহণ করে আর দেশে ফিরছে না। এ মেধা পাচার নিয়ে এখনই ভাবতে হবে, এটা বন্ধ করতে হবে।

প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ স্বাধীন করে দিয়েছিলেন বলে… আমি প্রধান বিচারপতি হতে পেরেছি।’

“সাইবার ক্রাইম করে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে কোটি কোটি টাকা বিদেশে পাচার হয়েছে। আমি প্রধান বিচারপতি, আমারও সাইবার ক্রাইম বিষয়ে শিক্ষা নেই। আমাদের আইনজীবীদের সাইবার ক্রাইম ‘ল’ বিষয়ে লেখাপড়া নেই। তাই সাইবার ক্রাইম ‘ল’ বিষয়ে আমাদের পড়তে হবে”, বলেন প্রধান বিচারপতি।

পৃথিবীর উন্নত দেশে ধনী ব্যক্তিরা অক্সফোর্ড, কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেছেন। তেমনিভাবে বাংলাদেশের ধনী ব্যক্তিদেরও বেশি করে উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠায় এগিয়ে আসতে হবে।

এস কে সিনহা বলেন, ‘এখন বাংলাদেশকে আর বটমলেস বাসকেট (তলাবিহীন ঝুড়ি) কেউ বলে না। আমাদের অনেক উন্নতি হয়েছে।’

জেলা আইনজীবীর সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট রনজিৎ কুমার ঘোষের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন মৌলভীবাজার জেলা দায়রা জজ আবু তাহের, জেলা প্রশাসক তোফায়েল ইসলাম, মুখ্য মহানগর হাকিম এ জি এম আল মাসুদ। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন আইনজীবী মুজিবুর রহমান মুজিব,আইনজীবী সমর কান্তি দাশ চৌধুরী, আইনজীবী মিজানুর রহমান প্রমুখ। -ডেস্ক