(দিনাজপুর২৪.কম) বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় আব্দুল গণি মিঠু(৩৫) নামের এক পল্লী চিকিৎসককে গুলি করে হত্যা করার চেষ্টা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৮টার দিকে উপজেলার দাড়াইল বাজারে ওই ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (শজিমেক) নেওয়া হয়। কিন্তু কর্তব্যরত চিকিৎসকবৃন্দ তার রক্তক্ষরণ বন্ধ করতে ব্যর্থ হয়। ফলে গুরুতর আহত মিঠুকে রাত ১১টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের জন্য পাঠানো হয়। গুলিবিদ্ধ এই পল্লী চিকিৎসক গাবতলী উপজেলার তরফসরতাজ গ্রামের মোফাজ্জল হক মণ্ডলের ছেলে। তিনি স্থানীয় বিএনপির কর্মী বলে জানা গেছে।
বগুড়া শজিমেক হাসপাতাল সংলগ্ন ছিলিমপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শাহ্ আলম জানান, গুলিবিদ্ধ আব্দুল গণি মিশুকে রাত সাড়ে ৮টার দিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। একটি গুলি মিশুর বাম চোখে লাগে। তাকে অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়েছে।
বগুড়ার গাবতলী থানার ওসি রিয়াজ উদ্দিন জানান, আব্দুল গণি মিশু হার্বাল পদ্ধতিতে চিকিৎসা করতেন। এলাকার লোকজন তাকে পল্লী চিকিৎসক হিসেবেই জানে।
তিনি বলেন, আমরা তার স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে তার সঙ্গে কারও কোনো শত্রুতা কিংবা বিরোধের তথ্য পাইনি। তবে তদন্ত চলছে। আশাকরি দুর্বৃত্তদের পরিচয় জানা যাবে এবং তাদের ধরাও সম্ভব হবে। (ডেস্ক)