(দিনাজপুর২৪.কম) বগুড়ার শিবগঞ্জে মোস্তাফিজার রহমান মোস্তা (৫০) নামে এক আওয়ামী  লীগ নেতা ও সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করেছে দূর্বৃত্তরা। আজ বুধবার সকাল ৯টায় পুলিশ উপজেলা সদরের আলাদিপুর নয়া পাড়া  গ্রামের একটি পুকুর পাড় থেকে তার লাশ উদ্ধার করে। মঙ্গলবার দিবাগত রাতের কোন এক সময় দূর্বৃত্তরা তাকে হত্যা করে ঘটনাস্থলে ফেলে যায়।

নিহত মোস্তাফিজার ওই এলাকার আকবর হোসেন মন্ডলের ছেলে। তিনি শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৯নং ওয়ার্ডের সদস্য এবং একই ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য ছিলেন। তার ‘এমএবি’ নামে একটি ইট ভাটা ছিলো। এছাড়া তিনি বালু ব্যবসার সঙ্গেও জড়িত ছিলেন।

জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার  সন্ধ্যার পর তিনি তার ইটভাটায় যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন। এরপর তিনি আর ফিরে আসেননি।

এই সময়ের মাঝে তার স্ত্রী তার মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করলেও কেউ ফোন রিসিভ করেননি। পরে আজ সকালে তার বাড়ি থেকে ২০০ গজ দুরে একটি পুকুর পাড়ে মোস্তাফিজারের গলাকাটা লাশ দেখতে পান প্রতিবেশীরা। তারা থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। নিহতের হাত-পায়ের রগ কাটা ছাড়াও মাথায় আঘাতের চিহ্ন এবং পা ভাঙা ছিল।

সহকারী পুলিশ সুপার (শিবগঞ্জ সার্কেল) আরিফুল ইসলাম সিদ্দিকী জানান, তাৎক্ষণিকভাবে হত্যার কারণ জানা যায়নি। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। -ডেস্ক