-প্রতীকি ছবি

মোঃ আফজাল হোসেন (দিনাজপুর২৪.কম)  ফুলবাড়ী সরকারি কলেজের জায়গায় লাগানো ১০২টি বনজ ও বৃক্ষের লাগানো গাছ উপড়ে ফেলেছে মাদক ব্যবসায়ী ও ভূমি দস্যুরা। মুজিব বর্ষ উদযাপনের অংশ হিসেবে সারা দেশে গত ১৬.০৭.২০২০ ইং তারিখে ১ কোটি চারা বিতরণ ও রোপণ কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধান মন্ত্রী আহব্বান করেন, যে যেখানে অবস্থান করছেন, যার যতটুকু জায়গা রয়েছে, সেখানে বৃক্ষ রোপণ করবেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অহব্বান অনুসারে ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ, বিএনসিসি ও রোভার স্কাউট এর সহায়তায় গত ২৫/০৭/২০২০ ইং তারিখে ফুলবাড়ী সরকারি কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীরা কলেজের উত্তর পার্শ্বে সিএনবি’র রাস্তার সীমান প্রাচীরের ভিতরে নিজস্ব সম্পত্তিতে ১০২টি বনজ ও বৃক্ষ চারা রোপন করেন। গত ২৭/০৭/২০২০ ইং তারিখে সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টায় ফুলবাড়ীর মাদক ব্যবসায়ী বহু মামলার আসামী মোঃ সিরাজুল ইসলাম গামা গংরা লাগানো গাছগুলি উপড়ে ফেলে দেয়। এছাড়া কিছু গাছ নষ্ট করে ফেলে। গাছ উপড়ানোর সময় ফুলবাড়ী সরকারি কলেজের দুই জন ডেগার্ড গাছগুলি রক্ষায় সেখানে উপস্থিত হলে মাদক ব্যবসায়ী ও ভূমি দস্যুরা পালিয়ে যায়। উল্লেখ্য যে ফুলবাড়ী দিনাজপুর মহাসড়কের রাস্তা প্রসস্থের কাজ শুরু হলে সরকারি ভাবে ভূমি দস্যু ও মাদক ব্যবসায়ীদের কে সরকারি কলেজের কর্মকর্তা কর্মচারী, শিক্ষার্থী ও ফুলবাড়ী বাসিকে নিয়ে সরকারি কলেজের সম্পতিতে অবৈধ্যভাবে বসবাসকারিদের কে উচ্ছেদ করা হয় এবং কলেজ কর্তৃপক্ষ তাদের জায়গা দখল করে বাউন্ডেরি ওয়াল নির্মাণ করেন। সেই নির্মাণকৃত ওয়ালের ভিতরে বৃক্ষ ও বনজ চারা লাগানো হয়। এ বিষয়ে ফুলবাড়ী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসার মোঃ নজমুল হক এর সাথে কথা বললে তিনি সাংবাদিকে জানান, অনেক কষ্টে সরকারি সম্পদ উদ্ধার করা হয়েছে। মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর অহব্বানে সারা দেশের ন্যায় আমরা বনজ ও বৃক্ষের চারা রোপণ করছি। কিন্তু মাদক ব্যবসায়ী ও ভুমি দস্যুরা লাগানো গাছগুলি উপড়ে ফেলে। আমরা তাদেরকে চিহ্নিত করে ৬-৭ জন এর বিরুদ্ধে ফুলবাড়ী থানায় একটি সাধারণ ডাইরি দায়ের করি। যাহার নং-১১০২, তারিখ-২৮/০৭/২০২০ ইং। সরকারি সম্পদ কেউ তছনছ করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। সে যেই হোক না কেন।