(দিনাজপুর২৪.কম) বিশ্ব ফুটবল নিয়ন্ত্রণ সংস্থা ফিফা প্রথম নারী মহাসচিব পেলো। আফ্রিকার দেশ সেনেগালের ফাতমা সামবা দিউফ সামৌরা ফিফার গুরুত্বপূর্ণ এ পদ পেলেন। শুক্রবার মেক্সিকো সিটিতে ফিফার ৬৬তম কংগ্রেসে তার নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করে সংস্থাটি। দুর্নীতিন দায়ে ১২ বছর ফুটবলীয় সব কর্মকা-ে নিষিদ্ধ জেরোমে ভলকের স্থলাভিষিক্ত হবেন তিনি। জুন মাসের শুরু থেকে তিনি এই দায়িত্ব গ্রহণ করবেন। সংগঠনের পূনর্গঠনের স্বার্থেই নতুন মুখ হিসেবে ফাতমাকে মহাসচিব করা হয়েছে বলে জানালেন ফিফার প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফানতিনো। ৫৪ বছর বয়সী ফাতমা সামৌরার ২১ বছর জাতিসংঘে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। ১৯৯৫ সালে বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির কর্মকর্তা হিসেবে জাতিসংঘে কর্মজীবন শুরু করেন ফাতমা। চারটি ভাষায় অনর্গল কথা বলতে পারা এ নারী কর্মকর্তা নাইজেরিয়াসহ আফ্রিকার ছয়টি দেশে জাতিসংঘের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। বর্তমানে নাইজেরিয়ার জাতিসংঘ মিশনে কর্মরত তিনি। এছাড়া বেসরকারী বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে তার। দুর্নীতির কারণে সম্প্রতি ফিফার শীর্ষ নেতৃত্বে বেশ রদবদল এসেছে। ১৯৯৮ সাল থেকে ফিফার প্রেসেডেন্টের দায়িত্ব পালন করা সেপ ব্লাটারকেও দুর্নীতির দায়ে গত বছর সরে যেতে হয়। নয়া মহাসচিবকে নিয়ে ফিফার প্রেসিডেন্ট ইনফানতিনো বলেন, ‘ফাতমা এমনই একজন নারী যার আন্তর্জাতিক অঙ্গনে অনেক অভিজ্ঞতা রয়েছে। তিনি অনেক চ্যালেঞ্জিং ইস্যুতে কাজ করেছেন। বিভিন্ন গোষ্ঠী ও দলকে নেতৃত্ব দেয়ার যোগ্যতার প্রমাণ তিনি আগেই দিয়েছেন। সংগঠনের উন্নতি করার বিষয়টি তিনি জানেন। ফিফার জন্য তিনি যোগ্য ব্যক্তি’। অন্যদিকে ফিফার প্রথম নারী মহাসচিব হওয়ায় ফাতমা বলেন, ‘আজকের দিনটি আমার জন্য স্মরণীয়। ফিফার মতো একটি সংগঠনের প্রথম নারী মহাসচিব হিসেবে নিয়োগ পাওয়াটা আমার জন্য বিরাট সম্মানের। আমি বিশ্বাস করি এই পদটি আমার অভিজ্ঞতা ও দক্ষতার ক্ষেত্রে পুরোপুরি উপযুক্ত। এতো বছরের অর্জিত অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা বিশ্বব্যাপী ফুটবলের উন্নয়নের জন্য কাজে লাগাতে চাই।’-ডেস্ক