(দিনাজপুর২৪.কম) ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলায় এহসান সোসাইটি বাংলাদেশ লিমিটেড এর কামারখালী শাখার ব্যবস্থাপক মো রিপন হোসেন ৬ জন মাঠকর্মীর ১২শ ৭৬ জন গ্রাহকের ৯৮ লাখ ৬২ হাজার ৯২৫ টাকা হাতিয়ে নিয়ে অফিস বন্ধ করে পালিয়ে গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।  এ ব্যাপারে গ্রাহকদের টাকা ফিরে পেতে মাওলানা সাখাওয়াত হোসেন নামে একজন মাঠকর্মী প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও কামারখালী শাখা ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৪নং আমলী আদালত ফরিদপুরে একটি মামলা করেছে । স্থানীয়দের অভিযোগ ও মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, এহসান সোসাইটি বাংলাদেশ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী রবিউল ইসলাম ও কামারখালী শাখার ব্যবস্থাপক মোঃ রিপন হোসেন বিভিন্ন লোভনীয় প্রস্তাবের মাধ্যমে মাঠকর্মী নিয়োগ দিয়ে তাদের মাধ্যমে গ্রাহকদের নিকট থেকে টাকা সংগ্রহ করতে থাকে। এর মধ্যে ১ জুন ২০০৩ ইং থেকে ৩১ মার্চ ২০১৫ইং তারিখ পযর্ন্ত মাওলানা সাখাওয়াত, মো ওয়াছি উদ্দিন, মো ফরিদুল ইসলাম, মো ওসমান সেক, মো সাজ্জাদ হোসেন, হাফেজ মো আলম হোসেন মোট ৬ জন মাঠকর্মী ১২৭৬ জন গ্রাহকের মোট ৯৮ লাখ ৬২ হাজার ৯২৫ টাকা কামারখালী শাখায় জমা দেয়। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ীই গ্রাহকরা মাঠকর্মীদের নিকট টাকা দাবী করতে থাকে।
কিন্তু শাখা ব্যবস্থাপক বিভিন্ন সময়ে কর্মীদের সাথে টালবাহানা করে হঠাৎ অতি গোপনে অফিসের জায়গাসহ অফিস বিক্রি করে আত্মগোপন করে। টাকা নিয়ে চম্পট দেয়ায় বিপাকে পড়ে মাঠকর্মী ও গ্রাহকেরা। উপায়ন্তর না দেখে গ্রাহকদের চাপের মুখে পড়ে একজন মাঠকর্মী গ্রাহকদের টাকা ফেরত পেতে সম্প্রতি ফরিদপুর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এর ৪নং আমলী আদালতে একটি মামলা করেছে।এ ব্যাপারে শাখা ব্যবস্থাপক রিপনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া সম্ভব হয়নি। – ডেস্ক