মো. নজরুল ইসলাম (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে শেখ রাসেল জাতীয় উদ্যান আশুড়ার বিল এলাকায় প্রেমিকাকে নিয়ে প্রেমিক বেড়াতে গেলে স্থানীয় বখাটে যুবকরা প্রেমিককে মারপিট করে প্রেমিকাকে ধর্ষন করেছে। এঘটনায় প্রেমিক রিয়াজুল ইসলাম বাদি হয়ে নবাবগঞ্জ থানায় মামলা করেছেন। পুলিশ ৪ যুবককে আটক করেছে এবং ধর্ষিতাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) দিনাজপুর এম, আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠিয়েছে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক আব্দুস সালাম জানান, নবাবগঞ্জ কলেজের দ্বাদশ প্রেণির ছাত্র রিয়াজুল ইসলাম (২০) সোমবার (১০ আগস্ট) তার প্রেমিকাকে নিয়ে নবাবগঞ্জে শেখ রাসেল জাতীয় উদ্যান আশুড়ার বিল এলাকায় বেড়াতে যান। দুপুরে ঐ এলাকার শওগুন খোলা গ্রামের শরিয়তের পুত্র শাহিনুর আলম (৩০) ও ইসমাইলের পুত্র আজিম (৩১), ফতেপুর মাড়াষ গ্রামের মতিনের পুত্র সাজেদুল (২১) ও আবু তাহেরের পুত্র সাহারুলসহ (২০) কয়েকজন যুবক প্রেমিক রিয়াজুল ইসলামকে মারধর ও আটককে রেখে টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। এসময় শাহিনুর আলম প্রেমিকাকে ঘাড়ে তুলে শালবনের ভিতরে নিয়ে ধর্ষন করে। প্রেমিককে আটক রাখা অন্যান্য যুবকরা প্রেমিকার মুক্তিপন বাবদ ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। ঘটনাক্রমে প্রেমিক রিয়াজুল যুবকদের নিকট থেকে দৌড়ে পালিয়ে পথিমধ্যে এক ব্যক্তির নিকট মোবাইল ফোন চেয়ে নিয়ে ৯৯৯ নম্বরে কল দিয়ে ঘটনার বর্ণনা জানান। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ভাবে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে স্থানীয় বন রক্ষা কমিটির সহায়তায় ধর্ষক শাহিনুরসহ ৪ জনকে আটক করা হয়।
নবাবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অশোক কুমার চৌহান জানান, এঘটনায় থানায় অপহরণ পূর্বক ধর্ষন ও চাঁদা দাবির মামলা হয়েছে। ৪ আসামীকে আটক করা হয়েছে। ধর্ষিতার ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য দিনাজপুর এম, আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে।