(দিনাজপুর২৪.কম) ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন আজ বৃহস্পতিবার। এদিন বিকাল ৫টা পর্যন্ত নির্বাচন থেকে আনুষ্ঠানিক নিজেদের প্রত্যাহার করতে পারবেন প্রার্থীরা। এরই মধ্যে দল সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীদের বাইরে বিদ্রোহীদের এ নির্বাচন থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করতে স্ব স্ব দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছে বড়ো দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সময় পার হওয়ার পর চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা তৈরি করবে দুই রিটার্নিং কর্মকর্তার দপ্তর। চূড়ান্ত প্রার্থীদের মধ্যে কাল প্রতীক বরাদ্দ দেওয়ার পর শুরু হবে আনুষ্ঠানিক প্রচার।

নির্বাচন কর্মকর্তারা জানান, এবার সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রার্থীরা ২০ দিন প্রচারের সুযোগ পাচ্ছেন। আচরণবিধিমালা মেনে প্রচার চালাতে এরই মধ্যে প্রার্থীদের অনুরোধ জানিয়েছেন স্ব স্ব রিটার্নিং কর্মকর্তারা। এছাড়া আচরণবিধিমালা প্রতিপালন দেখভালে মাঠে রয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরাও।

এর আগে গত ৩১ ডিসেম্বর ঢাকার দুই সিটিতে উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থীরা। দুই সিটিতে মেয়র পদে ১৪ জন এবং ১৭২ পদের বিপরীতে সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী হন ১ হাজার ২৫ জন। এর মধ্যে ঢাকা উত্তরে মেয়র সাত জন, কাউন্সিলর ৩৭৪ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর ৮৯ জনসহ মোট ৪৭০ জন এবং দক্ষিণে মেয়র পদে সাত জন, সাধারণ কাউন্সিলর ৪৬০ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর ১০২ জনসহ মোট ৫৬৯ জন প্রার্থী হন।

দুই রিটার্নিং কর্মকর্তার দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত দুই জানুয়ারি রিটার্নিং কর্মকর্তারা স্ব স্ব এলাকার প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাছাই করে একজন মেয়র প্রার্থী ও ৪৫ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল করেন। এর বিরুদ্ধে আপিল করে ঢাকা উত্তরে সাত জন ও দক্ষিণে ১৯ জন কাউন্সিলর প্রার্থী তাদের প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। এর বাইরেও উচ্চ আদালতের মামলা করে দু-একজন প্রার্থিতা ফিরে পাচ্ছেন বলেও জেনেছেন নির্বাচন কর্মকর্তারা।-ডেস্ক