1. dinajpur24@gmail.com : admin :
  2. erwinhigh@hidebox.org : adriannenaumann :
  3. dinajpur24@gmail.com : akashpcs :
  4. self@unliwalk.biz : brandymcguinness :
  5. ChristineTrent91@basic.intained.com : christinetrent4 :
  6. rosettaogren3451@dvd.dns-cloud.net : darrinsmalley71 :
  7. Dinah_Pirkle28@lovemail.top : dinahpirkle35 :
  8. emmie@a.get-bitcoins.online : earnestinemachad :
  9. vandagullettezqsl@yahoo.com : gastonsugerman9 :
  10. cruz.sill.u.s.t.ra.t.eo91.811.4@gmail.com : howardb00686322 :
  11. azegovvasudev@mail.ru : latricebohr8 :
  12. corinehockensmith409@gay.theworkpc.com : meaganfeldman5 :
  13. kenmacdonald@hidebox.org : moset2566069 :
  14. news@dinajpur24.com : nalam :
  15. marianne@e.linklist.club : noblestepp6504 :
  16. NonaShenton@miss.kellergy.com : nonashenton3144 :
  17. armandowray@freundin.ru : normamedlock :
  18. rubyfdb1f@mail.ru : paulinajarman2 :
  19. vaughnfrodsham2412@456.dns-cloud.net : reneseward95 :
  20. Roosevelt_Fontenot@speaker.buypbn.com : rooseveltfonteno :
  21. Sonya.Hite@g.dietingadvise.club : sonya48q5311114 :
  22. gorizontowrostislaw@mail.ru : spencer0759 :
  23. jcsuave@yahoo.com : vaniabarkley :
মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ১২:৫২ অপরাহ্ন
নোটিশ :
নতুন রুপে আসছে দিনাজপুর২৪.কম! ২০১০ সাল থেকে উত্তরবঙ্গের পুরনো নিউজ পোর্টালটির জন্য দেশব্যাপী সাংবাদিক, বিজ্ঞাপনদাতা প্রয়োজন। সারাদেশে সংবাদকর্মী নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা এখনই প্রয়োজনীয় জীবন বৃত্তান্ত সহ সিভি dinajpur24@gmail.com এ ইমেইলে পাঠান।

অহেতুক বিতর্ক নয়, প্রয়োজন রোগের ওষুধ : প্রশ্নবিদ্ধ জিপিএ-৫ !

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৩১ মে, ২০১৬
  • ১ বার পঠিত

এস.এন.আকাশ, সম্পাদক (দিনাজপুর২৪.কম) ভিডিওটি হয়তো এরই মধ্যে আপনি দেখেছেন। হয়তো দেখেননি। দেখলে নিশ্চয়ই আঁতকে উঠেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় এরইমধ্যে তা ভাইরাল হয়েছে। খবরটি ছিল একটি টিভি চ্যানেলের। জিপিএ-৫ পাওয়া কয়েকজন শিক্ষার্থীকে বেশ কয়েকটি প্রশ্ন করেন রিপোর্টার। বেশির ভাগ প্রশ্নেরই ভুল উত্তর পাওয়া যায়। স্বীকার করে নেয়া ভালো, ১৩ শিক্ষার্থীকে করা বেশ কিছু প্রশ্নের জবাব এ লেখার লেখকেরও অজানা। তবে কিছু কিছু প্রশ্নের যে জবাব তারা দিয়েছেনÑ তা আঁতকে ওঠার মতো। অপারেশন সার্চ লাইটের বিষয়টি বাংলাদেশের মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থী জানেন নাÑ তা বিশ্বাস করা বিস্ময়কর। কিন্তু চোখে দেখে বিশ্বাস নাও করি কিভাবে। এমন আরও কিছু আঁতকে ওঠা জবাব তারা দিয়েছেন। ১. আমি জিপিএ-৫ পেয়েছি এর ইংরেজি বলা হয়েছেÑ আই অ্যাম জিপিএ-৫ ২. জাতীয় সংগীতের রচয়িতা কাজী নজরুল ইসলাম ৩. শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ১৭ই আগস্ট। এমন আরো প্রশ্ন ও উত্তর আছে।
এ প্রতিবেদনটি নিয়ে মহাবিতর্ক চলছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। মোটা দাগে দুই ধরনের বক্তব্য। কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছেন, এ ধরনের প্রতিবেদন প্রকাশ করা উচিত হয়নি। বিশেষ করে যে শিক্ষার্থীদের দেখানো হয়েছেÑ তাদের সম্মান ক্ষুণœ হয়েছে। আবার কেউ কেউ প্রতিবেদনটি প্রশংসা করে বলছেন, শিক্ষাব্যবস্থার একটি গভীর ক্ষতের দিকে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে এ প্রতিবেদন। নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ফেসবুকে লিখেছেন, আর সবকিছু বাদ দেন, এই রিপোর্টের কারণে যে এ ব্যস্ত জীবনের ফাঁকে আমরা অনেকেই আমাদের মহা উন্নত শিক্ষা ব্যবস্থার ভেতরের ফাঁপা দিকটা নিয়ে একটু কথা বললাম, আমাদের জিপিএ ফাইভ আর রেকর্ড পাসের হারের ফাঁপা আত্মপ্রসাদ যে একটু টোকা খেলো, সেটার জন্য হলেও আমি এটাকে ধন্যবাদ দেবো। সঙ্গে সঙ্গে এটাও বলতে চাই, ছেলেমেয়েদের চেহারাটা ব্লার করে দেয়া উচিত ছিল বলে আমিও মনে করি। ওইসব ছাত্রের শিক্ষকদেরও ইন্টারভিউ নেয়া উচিত ছিল। কিছু কিছু বিসিএস গাইড টাইপ প্রশ্নও সেখানে ছিল যেগুলোর উত্তর হয়তো এক ঝটকায় অনেক ইলাত-বিলাত পাসও পারবে না। বা সবাই জগতের সব বিষয় জানবে এমনও না। আবার অনেক সহজ ব্যাপারও ছিল যেটার উত্তর না জানা একটু অস্বাভাবিকই। রিপোর্টের এসব দিক নিয়ে বিস্তর আলোচনা হতে পারে। কিন্তু রিপোর্টে যে চিত্র ভেসে এসেছে বাস্তব অবস্থা তার কাছাকাছি বলেই বিশ্বাস করি। এটা স্বীকার করে না নিলে অবস্থা কোনোদিনই বদলাবে না। শিক্ষামন্ত্রণালয় যখন লিখিত নির্দেশনা পাঠায় ৩০ পেলে ৩৩ করে দিতে, তখন এটা নিচের দিকে কেবল তিন নম্বরের বার্তা নিয়ে যায় না, এটা এক সামগ্রিক শিথিলতার বার্তা বহন করে। এই শিথিলতার ফোঁকর দিয়ে ফাঁস হয় প্রশ্ন, প্রসব করা হয় হাজারে হাজার কাতারে কাতার জিপিএ ফাইভ । পুরা শিক্ষা ব্যবস্থার মেশিনটাই তখন হয়ে পড়ে রুগ্ণ। পরিশেষে, মনে রাখবেন ওইসব বালক-বালিকারা নিজেরা নিজেদের জিপিএ ফাইভ প্রদান করে নাই। এই রুগ্ণ মেশিন তাদের জিপিএ ফাইভ ঘোষণা করেছে। ওই রিপোর্টে এই মেশিনকে প্রশ্ন করা হয়েছে বলে ধন্যবাদ জানাই। হাজার কোটি টাকা লুট হয়ে গেলেও জাতি ঘুরে দাঁড়াতে পারবে আশা করা যায়। কিন্তু শিক্ষা ব্যবস্থা ধসে গেলে ঘুরে দাঁড়ানো কঠিন। তাই এটা নিয়ে আওয়ামী লীগ বিএনপি না করে সবাই কথা বলেন।
লেখক মঈনুল আহসান সাবের লিখেছেন, একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে ফেসবুক জুড়ে। জিপিএ ফাইভ পাওয়া ছাত্রছাত্রীদের খুব সাধারণ প্রশ্ন করা হচ্ছে, তার কোনটারই উত্তর তারা দিতে পারছে না। আমি জিপিএ ফাইভ পেয়েছি, এর ইংরেজি জানে না। দেশের রাষ্ট্রপতির নাম জানে না। শহীদ মিনার কোথায় জানে না। স্বাধীনতা ও বিজয় দিবস কবে জানে না। জানে না শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের কথা, বলতে পারে না রবীন্দ্রনাথের লেখা কোন গল্পের নাম। তাদের না জানার পরিমাণ যেমন বিস্ময়কর তেমনই কষ্ট জাগানিয়া। তবে  দেখতে দেখতে আমার একটা কথা মনে হলো। খুব সাধারণ বিষয়ও না জানার ব্যাপারটি বারবার ‘মেধাবী’ ছাত্রছাত্রীদের প্রমাণ করতে হয় কেন! একবার শিক্ষকদেরও জিজ্ঞেস করে দেখা হোক না। বিচারক না হয় শিক্ষামন্ত্রী থাকলেন।
মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ও মঈনুল আহসান সাবেরের মতো অনেকেই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন এ প্রতিবেদনের। কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছেন সাংবাদিকতার নৈতিকতার দিকেও। যদিও বাংলাদেশে এ নৈতিকতা বিষয়টি তখনই উচ্চারিত হয় যখন বিষয়টি নিজ স্বার্থের বিরুদ্ধে যায়। এ কথা অবশ্যই সত্য, ওই শিক্ষার্থীদের চেহারা দেখানো উচিত হয়নি। এবং আমাদের সব শিক্ষার্থীদের মানও তা নয়। কিন্তু ভোগবাদী এই সময়ে আমরা যে কেবল পরীক্ষায় ভালো করার পেছনে ছুটছি তাওতো মিথ্যা নয়। জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীদের একটি বড় অংশ যে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় পাস নাম্বারও পান না সেটাও তো সত্য।

 এই প্রতিবেদনটি ধসের মুখে থাকা শিক্ষা ব্যবস্থার দিকেই আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। অহেতুক বিতর্ক নয়, প্রয়োজন রোগের ওষুধ।

মোস্তফা সরয়ার ফারুকী  ও ময়নুলের বিরুদ্ধে সাংবাদিকরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। তিনি শুধু সাংবাদিককে দোষারোপ করলেন। কিন্তু এসব ছাত্র/ছাত্রীরা কিভাবে জিপিএ-৫ পেলেন? ঐ ছাত্ছাত্রীদের  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের সনদ জাল কিনা কিংবা শিক্ষাবোর্ডের কর্মকর্তাদের ত্রুটি আছে কিনা বা জিপিএ-৫  অর্থের বিনিময়ে  জিপিএ-৫ করেছে কিনা তদন্ত করার দরকার ছিল কিনা এসব বক্তব্য তারা দেননি। সাংবাদিকরা তাদের কতর্ব্য পালন করছে মাত্র। এই ভিডিও চিত্র দেখে অনেক অভিভাবক সচেতন হবে। দেশে সত্যিকার মেধাবীরা তৈরী হবে এবং দেশ পরিচালনা করবে।-ডেস্ক

নিউজট শেয়ার করুন..

এই ক্যাটাগরির আরো খবর