(দিনাজপুর২৪.কম) ২০১৬ সালের জন্য বিশ্বের প্রভাবশালী একশ নারীর তালিকা প্রকাশ করেছে মার্কিন ম্যগাজিন ফোর্বস। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই তালিকায় রয়েছেন ৩৬তম স্থানে। তিনি ২০১৫ সালের তালিকায় ছিলেন ৫৯তম স্থানে। এ বছরের তালিকায় টানা ষষ্ঠবারের মতো শীর্ষস্থানে রয়েছেন জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচনে ডেমোক্রেট দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী ও সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন। মার্কিন অর্থনীতিবিদ ও ফেডারেল রিজার্ভ সিস্টেমের বোর্ড অব গভর্নরসের প্রধান জ্যানেট ইয়েলেন রয়েছেন তালিকার তৃতীয় স্থানে। গত বছরের এই তালিকার সপ্তম স্থানে থাকলেও, এ বছরের তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন অভিশংসন বিচারের মুখোমুখি ব্রাজিলের সাময়িক বরখাস্ত প্রেসিডেন্ট দিলমা রুসেফ। গতকাল এই তালিকা প্রকাশ করা হয় ফোর্বসের ওয়েবসাইটে। একশ নারীর এই তালিকায় বরাবরের মতোই আধিপত্য রয়েছে মার্কিন নারীদের। এ বছরের তালিকায় তাদের উপস্থিতি রয়েছে ৫১ জনের। এরপর দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে চীন; তালিকায় চীনা নারীর সংখ্যা নয় জন। শীর্ষ দশে থাকা নারীদের বাকিরা হলেন যথাক্রমে বিল ও মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা মানবহিতৈষী মেলিন্ডা গেটস, গাড়ি নির্মাতা জেনারেল মটোরসের সিইও ম্যারি বারা, আইএমএফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্রিস্টিন ল্যাগার্দে, ফেসবুকের প্রধান পরিচালনা কর্মকর্তা শেরিল স্যান্ডবার্গ, ইউটিউবের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সুসান ওজকিকি, কম্পিউটার ও আইটি পণ্য নির্মাতা এইচপির সিইও মেগ হুইটম্যান এবং স্পেনের ব্যাংকিং গ্রুপ স্যানট্যানডার গ্রুপের নির্বাহী চেয়ারম্যান আনা প্যাট্রিসিয়া বটিন। ফোর্বস জানিয়েছে, এই তালিকার সবচেয়ে কম বয়সী নারী ৫৫তম স্থানে থাকা ইয়াহুর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মারিসা মেয়ারের বয়স ৪১ বছর। এ বছরের প্রভাবশালী একশ নারীর তালিকায় স্থান পেয়েছেন ২৯টি দেশের নারী নেত্রী, ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তা, মানবহিতৈষী। তাদের মধ্যে নারী নেত্রী রয়েছেন ১২ জন, বিলিওনেয়ার রয়েছেন ১১ জন, কোনো কোম্পানির প্রধান নির্বাহী রয়েছেন ৩২ জন। বিলিওনেয়ারদের মধ্যে নয় জন শূন্য থেকে শুরু করেছিলেন। এই তালিকায় থাকা নারীরা ১ ট্রিলিয়ন বা ১ হাজার বিলিয়ন মার্কিন ডলার রাজস্ব নিয়ন্ত্রণ করে থাকেন এবং তারা বিশ্বের ৩৬০ কোটি মানুষকে প্রভাবিত করে থাকেন।-ডেস্ক