(দিনাজপুর ২৪.কম) কানাডা প্রবাসী কথাশিল্পী প্রয়াত মোল্লা বাহাউদ্দীনের রাষ্ট্রীয় মর্যাদা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়। মোল্লার পরিবার থেকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে ‘রাষ্ট্রীয় মর্যাদা’র জন্য অটোয়াস্থ দূতাবাসে যোগাযোগ করা হলে তার প্রতিপক্ষ দাবি করে, তিনি মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন না। তা খতিয়ে দেখার জন্য দূতাবাস থেকে ঢাকায় মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করে। সেখানে মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় মোল্লা বাহাউদ্দীনের নাম পাওয়া যায়নি বলে হাই কমিশনার জানান। এদিকে পরিবার থেকেও মুক্তিযোদ্ধার কোনো কাগজ পত্র দেখাতে পারেনি।

বিষয়টি অমিমাংসিত রেখেই আজ স্থানীয় সময় মোল্লা বাহাউদ্দীনের টরন্টোস্থ মদিনা মসজিদে জোহর নামাজের শেষে জানাজার পর পিকারিং গোরস্তানে তাঁর লাশ দাফন হয়। উল্লেখ্য, গত সোমবার মরহুম ইষ্ট জেনারেল হাসপাতালে মৃত্যু বরণ করেন। ১৯৪৬ সালের ৩১শে ডিসেম্বর কুমিল্লা জেলার কসবা থানার বাড়াই গ্রামে মোল্লা পরিবারে জন্ম। বাহাউদ্দীনের পিতা ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন সক্রিয় যোদ্ধা ছিলেন বলে স্থানীয় একটি অনলাইন পত্রিকা এই তথ্য জানায়।(ডেস্ক)