সংগ্রহীত ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) ক্ষমতা গ্রহণের প্রথম দিনেই (২০ জানুয়ারি) নির্বাহী আদেশের মাধ্যমে মুসলিম-প্রধান দেশগুলোর ওপর ট্রাম্পের দেওয়া ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বাতিল করতে চান জো বাইডেন। এ ছাড়া প্যারিস জলবায়ু চুক্তিতে পুনরায় ফিরতে চান তিনি। বাইডেন প্রশাসনের চিফ অব স্টাফ রন ক্ল্যাইনের বরাতে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে দেশটির সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণের প্রথম দিনেই ডজন খানেক নির্বাহী আদেশ দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন। এর মধ্যে আরও রয়েছে, করোনাকালে শিক্ষার্থীদের ঋণের কিস্তি পরিশোধ বন্ধ রাখা।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বাইডেন প্রথম দিনেই জলবায়ু চুক্তি থেকে শুরু করে অভিবাসন ও পররাষ্ট্রনীতি নিয়ে কাজ করতে চান। রন ক্ল্যাইন এক বার্তায় গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘আমাদের নির্বাচনী প্রচারণার সময় বাইডেন এসব বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দিয়েছিলেন। প্রেসিডেন্ট হিসেবে তিনি প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে চান। তিনি ডজন খানেক নির্বাহী আদেশে সই করে দ্রুত বাস্তবায়নের জন্যে সেগুলো মন্ত্রিসভায় পাঠাতে চান।’

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, শুধু নির্বাহী আদেশই নয়, বাইডেন তার ক্ষমতাগ্রহণের ১০০ দিনের মধ্যে বড়-পরিসরে অভিবাসন পরিকল্পনা কংগ্রেসে পাঠাতে চান।

যুক্তরাষ্ট্রে বর্তমানে বসবাসরত কাগজপত্রহীন কয়েক লাখ অভিবাসন-প্রত্যাশীকে নাগরিকত্ব দেওয়ার বিষয়টি সেই পরিকল্পনায় থাকতে পারে বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। প্রতিবেদন মতে, ক্ষমতা গ্রহণের দ্বিতীয় দিনে বাইডেন করোনা সংকট মোকাবিলা এবং জননিরাপত্তা মেনে শিক্ষা ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে কয়েকটি নির্বাহী আদেশ দেবেন।

তিনি করোনা পরীক্ষার সুযোগ বাড়ানোর পাশাপাশি কর্মীদের করোনা থেকে রক্ষা ও জনস্বাস্থ্যের মানের বিষয়টি নিয়ে কাজ করবেন। আগামী ২২ জানুয়ারি বাইডেন তার ‘অর্থনৈতিক প্রণোদনা’র বিষয়টি নিয়ে দ্রুত কাজ করার বিষয়ে মন্ত্রিসভাকে নির্দেশ দেবেন বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

চিফ অব স্টাফের বরাত দিয়ে প্রতিবেদেন আরও বলা হয়েছে, আগামী ২৫ জানুয়ারি থেকে ১ ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বাইডেন ফৌজদারি বিচার ব্যবস্থা পুনর্গঠনসহ বেশ কয়েকটি নির্দেশ দেবেন। এ ছাড়া সে সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে আটকে থাকা শিশুদের পরিবারের সঙ্গে মিলিত করার ব্যবস্থা সংক্রান্ত নির্দেশ দেবেন। -ডেস্ক