(দিনাজপুর২৪.কম) ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নিয়ে সিল মারা ও ব্যালট বাক্স ভরানোর ঘটনায় দিনাজপুরের পার্বতীপুরে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ৪০ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। চতুর্র্থ দফার ইউপি নির্বাচনে শনিবার (৭ মে) পার্বতীপুরে ৮ ইউনিয়নের ৭৪টি ভোট কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হলেও একটি কেন্দ্রে  ভোট স্থগিত করা হয়েছে। নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, সকাল ৮টায় কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে ভোটগ্রহন শুরু করা হয়। ভোট শুরুর ১৫ মিনিটের মাথায় উপজেলার ১নং বেলাইচন্ডি ইউনিয়ন পরিষদের আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের  চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ রাজা ৩০-৪০ জন সমর্থক নিয়ে তার নিজ গ্রামের কৈপুলকি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রবেশ করে ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নেয়। এর কিছুক্ষনের মধ্যে তারা প্রায় ৮শ’ ব্যালট পেপারে সিল মেরে বাক্সে ভরায়।
পরিস্থিতি সামলাতে না পেরে কৈপুলকি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিজাইডিং অফিসার তহিজ উদ্দীন উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন। সাথে সাথেই র‌্যাব, বিজিবি ও পুলিশের টহলদল ওই কেন্দ্রে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
ওই ইউনিয়নের দায়িতপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ জিকরুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনার পরপরই এ কেন্দ্রের ভোটগ্রহন স্থগিত ঘোষনা করা হয়েছে। কেন্দ্রের সকল নির্বাচনী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, এ ঘটনায় প্রিজাইডিং অফিসার তহিজ উদ্দীন বাদী হয়ে আওয়ামীলীগ নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী নুর মোহাম্মদ রাজাসহ ৩০-৪০ কর্মী-সমর্থককে আসামী করে শনিবার ( ৭ মে) সন্ধ্যায় পার্বতীপুর মডেল থানায় একটি মামলা (নং-৬ তারিখ ঃ ৭-৫-১৬) দায়ের করেছেন। বর্তমানে এ ইউনিয়নে নির্বাচনী ফলাফল স্থগিত রয়েছে। -মাহবুবুল হক খান