(দিনাজপুর২৪.কম) একের পর এক ম্যাচ হারতে হারতে এখন পয়েন্ট টেবিলে সবার নিচে কিংস এলেভেন পাঞ্জাব। টুর্নামেন্টে অন্তত ২টি করে ম্যাচ জিতেছে বাকি সাত দল। শুধুমাত্র পাঞ্জাবই নিজেদের প্রথম ছয় ম্যাচে পেয়েছে মাত্র একটি জয়ের দেখা, তাও চার ম্যাচ আগে।

টানা চারটি ম্যাচ হারলেও দলের অন্যতম সেরা তারকা, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের রাজা ক্রিস গেইলকে মাঠে নামায়নি পাঞ্জাব। যা নিয়ে আইপিএলসহ পুরো ক্রিকেটাঙ্গনেই চলছে নানান গুঞ্জন। আইপিএল ক্যারিয়ারে যার রয়েছে দেড়শ’র বেশি স্ট্রাইকরেটে প্রায় সাড়ে ৪ হাজার রান, তাকে কি না দলেই নিচ্ছে না পাঞ্জাব!

এর পেছনে কি শুধু গেইলের বয়সের কাঁটা ৪১ ছুঁয়ে ফেলাটাই একমাত্র কারণ? নাকি অন্য রয়েছে অন্য ক্রিকেটীয় ব্যাখ্যা? অবশ্য পাঞ্জাবের অন্যান্য বিদেশি খেলোয়াড় বিশেষ করে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের টানা ব্যর্থতার পর ক্রিকেটীয় ব্যাখ্যার জায়গা বাকি থাকে খুবই কম। যেমনটা জানালেন দলের কোচ অনিল কুম্বলেও।

বৃহস্পতিবার রাতে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের কাছে ৫৯ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে টুর্নামেন্টের অন্যতম দারুণ সূচনা করা পাঞ্জাব। এই ম্যাচে খেলার কথা ছিল গেইলের। কিন্তু অদ্ভুত এক কারণে খেলতে পারেননি তিনি। যা সবার কাছে পরিষ্কার করেছেন পাঞ্জাবের হেড কোচ কুম্বলে। মূলত খাদ্যে বিষক্রিয়ার কারণে তাকে নিতে পারছে না পাঞ্জাব।

হায়দরাবাদের বিপক্ষে ম্যাচ চলাকালীন সময়ে ব্রডকাস্টারদের দেয়া সাক্ষাৎকারে কুম্বলে বলেন, ‘আজ (বৃহস্পতিবার) আমরা গেইলকে খেলাতে চেয়েছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত সে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। গত কয়েকদিন ধরে ফুড পয়েজনিংয়ের কারণে বেশ দুর্বল বোধ করছে গেইল। তাই তাকে নিতে পারছি না আমরা।’

টপঅর্ডারে ফর্মে রয়েছে দলের অধিনায়ক লোকেশ রাহুল এবং আরেক ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়াল। তবু আইপিএল ক্যারিয়ারে যার রয়েছে ছয়টি সেঞ্চুরি, গত আসরেও যিনি ১৫৩ স্ট্রাইকরেটে করেছেন ৪৯০ রান, সেই গেইলের একটা অন্যরকম চাহিদাই থাকার কথা টুর্নামেন্টে।

যে কারণে বিশ্লেষকদের অনেকেই বলছেন অফফর্মে থাকা দলের আরেক বিদেশি খেলোয়াড় ম্যাক্সওয়েলের বদলে গেইলকে নেয়ার কথা। এখনও পর্যন্ত ছয় ম্যাচে মাত্র ৪৮ রান করতে পেরেছেন ম্যাক্সওয়েল, স্ট্রাইকরেট আশির ঘরে। তাই তার বদলে গেইলের দলে ঢোকা এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। -ডেস্ক