(ঢাকা,দিনাজপুর২৪.কম) : সীমান্তে বারবার সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করায় রবিবার পাক কমিশনার আব্দুল বশিতকে সমন পাঠায় ভারত। গত ২৪ ঘণ্টায় পাক রেঞ্জার্সের গুলিতে অন্তত ৬ সাধারণ ভারতীয় মারা গিয়েছেন। যাদের মধ্যে এক মহিলা ও এক শিশুও ছিল। এরপরেই পাকিস্তানকে কড়া বার্তা দেওয়ার প্রস্তুতি শুরু করে ভারত। ভারতীয় সেনাও মুখের মত জবাব দিতে শুরু করে পাক সেনাকে। অন্যদিকে, পাকিস্তানকে চাপে রাখতে ভারতের তরফে কূটনৈতিক উদ্যোগও নেওয়া শুরু হয়। যার জেরেই পাক হাই কমিশনারকে আজ জরুরি তলব করা হয়।
তলব পেয়ে তড়িঘড়ি সাউথ ব্লকে পৌঁছে যান আবদুল বশিত। সেখানে দীর্ঘক্ষণ দু তরফের বৈঠক চলে। সূত্রের খবর, ভারতীয় বিদেশমন্ত্রকের তরফে বশিতকে কড়া বার্তা দেওয়া হয়। তার মধ্যেই এদিন ফের বেলা আড়াইটে নাগাদ জম্মু ও কাশ্মীরের সউজিয়ান সেক্টর ও মান্ডি সেক্টরে ফের সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘণ করেছে পাক সেনা। সীমান্তের ওপার থেকে ভারতীয় সেনা চৌকি লক্ষ্য করে চলছে শেল ও মর্টার বর্ষণ। কিন্তু এই অভিযোগ মানতে নারাজ পাক হাই কমিশনার। তাঁর পালটা দাবি, পাকিস্তান নয়, ভারতই বারবার শান্তি চুক্তি লঙ্ঘণ করছে।
বৈঠক থেকে বেরিয়ে এসে সাংবাদিকদের বশিত জানান, জুলাই ও অগাস্ট মাস জুড়ে সীমান্তে অশান্তি সম্পর্কে পাকিস্তান যথেষ্ট ওয়াকিবহাল। এই দু’মাসে অন্তত ৭০ বার সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘণ করা হয়েছে। বশিতের অভিযোগ, যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘণ করেছে ভারতই। বশিত বলেন, পাক সেনা প্ররোচনায় পা দেবে না। কিন্তু তাদের কাছেও যথেষ্ট প্রযুক্তি ও রসদ মজুত রয়েছে।