(দিনাজপুর২৪.কম) জুয়াড়িদের সঙ্গে সম্পর্ক ও এ বিষয়ে তথ্য গোপন করার অভিযোগে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ হয়েছেন পাকিস্তানের পাঁচ ক্রিকেটার। তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। এবার তাদের দেশত্যাগের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলো পাকিস্তান সরকার। পাকিস্তান সুপার লীগে (পিএসএল) দ্বিতীয় আসরের প্রথম ম্যাচের পর আরব আমিরাত থেকে পাকিস্তানে পাঠিয়ে দেয়া হয় শারজিল খান ও খালিদ লতিফকে। জুয়াড়িদের সঙ্গে সম্পর্ক থাকার অভিযোগে সাময়িক নিষিদ্ধ করা হয় তাদের। এরপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়ে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান নাসির জামশেদকে। এমন কি ইংল্যান্ডে থাকা এই খেলোয়াড়কে আটক করে দেশটির পুলিশ। আর সর্বশেষ গত সপ্তাহে নিষিদ্ধ হয়েছেন সাতফুটে পেসার মোহাম্মদ ইরফান ও শাহজাইব হাসান। এই পাঁচজনই খেলেছেন পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে। স্পট ফিক্সিং নিয়ে জুয়াড়িদের সঙ্গে সম্পর্ক ও তথ্য গোপন করা নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে চলছে তদন্ত। এই তদন্ত শেষ হওয়ার আগে তারা দেশ ছাড়তে পারবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে পাকিস্তানের সরকার। স্পট ফিক্সিং নিয়ে কঠোর অবস্থানে মখন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। সাবেক ও বর্তমান খেলোয়াড়রা দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাইছেন। মিসবাহ উল হক ও মোহাম্মদ হাফিজ অভিযোগ প্রমাণিত হওয়া খেলোয়াড়দের আজীনব নিষেধাজ্ঞা চাইলেন। আর সাবেক খেলোয়াড় জাভেদ মিয়াঁদাদ তো তাদের ‘মৃত্যুদণ্ড’ চাইলেন। -ডেস্ক