(দিনাজপুর২৪.কম) রাজধানীর শাহজাহানপুরে পাইপে পড়ে শিশু জিহাদের মৃত্যুর ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় চারজনকে দশ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এই মামলায় অপর দুই আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে। ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ মো. আখতারুজ্জামান রোববার দুপুরে এ রায় ঘোষণা করেন। কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন রেলওয়ের সিনিয়র উপ সহকারী প্রকৌশলী জাহাঙ্গীর আলম, সহকারী প্রকৌশলী মো. নাসির উদ্দিন, ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ার আবু আহমেদ শাকি ও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জেএসআর এর মালিক প্রকৌশলী আব্দুস সালাম ওরফে শফিকুল ইসলাম। তাদের ১০ বছরের কারাদণ্ডের পাশাপাশি ২ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।  খালাস পাওয়া দুই আসামি হলেন রেলওয়ের সহকারী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) দিপক কুমার ভৌমিক ও সহকারী প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম। আদালতের পর্যবেক্ষণে বলা হয়, আসামিদের অবহেলার কারণেই শিশু জিহাদের মৃত্যু হয়েছে।
২০১৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর শাহজাহানপুর রেল কলোনিতে খোলা থাকা কয়েকশ ফুট গভীর এক নলকূপের পাইপে পড়ে যায় চার বছরের জিহাদ। প্রায় ২৩ ঘণ্টা রুদ্ধশ্বাস অভিযানে অনেক নিচে ক্যামেরা নামিয়েও ফায়ার সার্ভিস কোনো মানুষের ছবি না পাওয়ায় পাইপে জিহাদের অস্তিত্ব থাকা নিয়ে সন্দেহ তৈরি হয়। ওই সন্দেহ রেখেই উদ্ধার অভিযান স্থগিতের ঘোষণা দেয় ফায়ার সার্ভিস। এর কয়েক মিনিটের মধ্যে কয়েকজন তরুণের তৎপরতায় তৈরি করা যন্ত্রে পাইপের নিচ থেকে উঠে আসে অচেতন জিহাদ। হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা জানান, শিশুটি বেঁচে নেই। -ডেস্ক