(দিনাজপুর২৪.কম) পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের পাঠাগার বিষয়ক মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরীকে ভিসা দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। পশ্চিমবঙ্গের এই নেতা দাবি করেছেন যে, ভিসা আবেদনের প্রক্রিয়া যথাযথভাবে অনুসরণ করার পরেও বাংলাদেশ সরকার তার ভিসা দেয়নি। একইসঙ্গে তাকে ভিসা বাতিলের কারণ জানানো হয়নি বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।
বিষয়টি নিয়ে কোলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশ ডেপুটি হাই কমিশন বলছে, টেকনিক্যাল কারণে ভিসা পাননি সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী। আগামী ২৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ সফরে আসার কথা ছিল পশ্চিমবঙ্গের এই নেতার। মমতা বন্দোপাধ্যায় সরকারের মন্ত্রিসভার এই সদস্য দেশটির ইংরেজি দৈনিক ইন্ডিয়া টুডেকে বলেন, এ সফরের জন্য আমাকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে অনাপত্তিপত্র (এনওসি) দেয়া হয়েছিল। এমনকি মুখ্যমন্ত্রীও এই সফরের ব্যাপারে জানতেন। কিন্তু শেষ মুহূর্তে এসে আমাকে সফর বাতিল করতে হবে।

ভারতীয় বার্তাসংস্থা এএনআইকে সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আমি প্রায় ১০ দিন আগে বাংলাদেশের ভিসার জন্য আবেদন করেছিলাম।

আমার টিকিটও বুকড করা হয়েছে। কিন্তু বুধবার ভিসা প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে বলে আমাকে জানানো হয়েছে। তবে প্রত্যাখ্যানের কোনো কারণ জানানো হয়নি। বাংলাদেশ সফরে এসে সিলেটের একটি মাদরাসার শতবর্ষপূর্তি উৎসবের পাশাপাশি আরও কিছু অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার কথা ছিল সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরীর। ২৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ সফরে এসে তার ভারতে ফেরার কথা ছিল ৩১ ডিসেম্বর।

বাংলাদেশ সফরে আসার ভিসা না পাওয়ার এ ঘটনাকে অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক এবং নজিরবিহীন বলে মন্তব্য করেছে পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক দল জমিয়ত-ই-উলামা হিন্দ।-ডেস্ক