(দিনাজপুর২৪.কম) বণ্যপ্রাণী বা পোষা প্রাণীদের জন্য দেশে প্রথমবারের মত ‘সিভাসু অ্যানিম্যাল ব্লাড ব্যাংক’ নামে ব্লাড ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের খুলশি এলাকায় অবস্থিত চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশের প্রথম ও একমাত্র এই ব্লাড ব্যাংক চালু করা হয়। আহত ও অসুস্থ প্রাণীর রক্তের চাহিদা মেটাতে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের এসএ কাদেরী টিচিং ভেটেরিনারি হাসপাতালে এ ব্লাড ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ জানান, মানুষের মত এখন থেকে প্রাণীরাও তাদের জন্য রক্ত দিবে এমন উদ্দেশ্যেই এই ব্লাড ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। অতিরিক্ত দুর্বলতা দূরীকরণে জরুরি ভিত্তিতে প্রাণিকে প্রয়োজন অনুযায়ী সিরাম অথবা লোহিত রক্তকণিকা অথবা শ্বেত রক্তকণিকা সরবরাহ করতে হয়। এক্ষেত্রে এই ব্লাড ব্যাংক গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করবে।

এ ব্যাপারে সিভাসু ভেটেরিনারি হাসপাতালের সার্জারি ও মেডিসিন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক বিবেক চন্দ্র সূত্রধর বলেন, একটি কুকুর বা বিড়াল প্রতি ৩০ থেকে ৪৫ দিন পর পর নিরাপদভাবে রক্তদান করতে পারে। একটি কুকুর বছরে সর্বোচ্চ চারবার রক্তদান করতে পারে। এক ব্যাগ রক্ত সর্বোচ্চ চারটি প্রাণির জীবনরক্ষায় ভূমিকা পালন করতে পারে। -ডেস্ক