সুকুমার দাস বাবু (দিনাজপুর২৪.কম) পঞ্চগড় সদর ইউনিয়নের মোলানী পাড়া গ্রামের মোঃ সামসুল হকের ছেলে আব্দুল লতিফ(৪৫) গত পহেলা রমজান ২৮/০৫/২০১৭ইং তারিখে মোলানী পাড়া তার নিজ বাড়িতে মোছাঃ সনি আক্তার(২৫) এর সাথে অপকর্ম কাজে লিপ্ত থাকায় এলাকাবাসী জানতে পেরে লতিফ ও সনি কে হাতে নাতে ধরে। জানা যায় লতিফ এক সময় পুলিশের চাকুরি করতেন তার বিভিন্ন অপকর্মের কারনে পুলিশের চাকুরি বরখাস্ত করলে সে এখন সুদের  ব্যবসা করেন। তাই  অবৈধ টাকার গরম সহ্য করতে না পেরে সে বিভিন্ন নারীর পিছনে খরচ করে থাকেন বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। এরআগেও মোলানী পাড়া গ্রামের নিরীহ গরিব পরিবারের একটি মেয়েকে ধর্ষন করে, পরে বিষয়টি টাকা পয়সা দিয়ে ধামাচাপা দেয়। এদিকে জানা গেছে লতিফের এসব অপকর্মের কারণে তার স্ত্রী ছেলে তাকে ত্যাগ করে পঞ্চগড় সদর হাসপাতালের কোয়াটারে থাকে। ধর্ষনের কারণে এলাকাবাসী লতিফকে আটকিয়ে গণধলাই দিয়ে পুলিশে শপথ করলে পুলিশ বিষয়টি বিবেচনা করে একদিন পর তাদেরকে ২৯৯ মামলায় চালান করেন। এদিকে জানা গেছে লমপট লতিফের শংসারে তার স্ত্রী ও দুই ছেলে এক মেয়ে রয়েছে। তারা তার স্ত্রীর তর্ত্তাবধায়নে থেকে কলেজে লেখা পড়া করেন।