সুকুমার দাস বাবু (দিনাজপুর২৪.কম) তেল গাছিদের হাতে মারাই খাঁটি সরিষার তেল বিভিন্ন হাট বাজারে অনায়াসে পাওয়া যেত। কিন্তু প্রকৃতির ও ডিজিটালের ছোয়ায় এখন আর চাইলেও গাছিদের হাতে মারাই খাঁটি সরিষার তেল সহজে পাওয়া যায় না। পঞ্চগড় জেলার বিভিন্ন উপজেলা ঘুরে তেঁতুলিয়া উপজেলার মাগুরমারী গ্রামে চোখে পড়ে যায় একটি সরিষা তেল মারাই করা তেল গাছির একটি গাইনি। ভজনপুরের তেল গাছি মো: এনামুল হক এর সাথে কথা বললে তিনি জানায়, ভজনপুর মাগুরমারী গ্রামের মো: তানভীর আহম্মেদ কর্নেল তিনি একজন সৌখিন লোক। ভেজাল মুক্ত খাঁটি সরিষার তেল তৈরির জন্য তিনি তার গ্রামের বাড়িতে একটি কর্মচারী রাখেন। কর্মচারী মো: এনামুল হককে দিয়ে তেলের গাছ চালিয়ে খাঁটি সরিষার তেল মারাই করেন। কর্নেল তানভীর আহম্মেদ কে তেল দিয়ে যেটুকু বেঁচে যায় সেইটুকু তেল ২৮০ টাকা দরে তিনি বাজারে বিক্রি করেন। তেল গাছি এনামুল হক আরও জানান, গোটা তেঁতুলিয়া এলাকা জুড়ে আর কোথাও এরকম গরু দিয়ে তেল মারাই গাছি নেই। এই উপজেলায় একমাত্র আমাদেরি তেল গাছ রয়েছে। তাই প্রায় সময় অনেক মানুষ আমার বাড়িতে খাঁটি সরিষার তেল নিতে আসে, কিন্তু আমি দিতেই পানিনা। কর্মচারী মো: এনামুল হক জানান, প্রতিদিন তেলের জন্য ৬ কেজি সরিষা মারাই করলে ২ কেজি তেল হয় এবং ৪ কেজি খৈইল হয়। প্রতি কেজি তেল বিক্রি হয় ২৮০ টাকা দরে। অন্যান্য কাজের চাপে এর বেশি তেল মারাই কর সম্ভব হয় না। তাই প্রতিদিন ৬ কেজি সরিষা আমি গাইনিতে মারাই করি। আর বাকি সময় আমি কর্নেল সাহেবের জমিজমা দেখাশোনা করি। বর্তমান প্রেক্ষাপটে গাইনি তেল হাতের নাগালের বাহিরে।