সুকুমার বাবু দাস (দিনাজপুর২৪.কম) পঞ্চগড়ের আটোয়ারীর  মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের আই,এল,সি কম্পিউটার ল্যাব হতে চুরি যাওয়া ২১ টি ল্যাপটপ ও ১টি  এলসিডি মনিটর উদ্ধারসহ,গত ২০/০৮/২০১৯ খ্রিঃ দিবাগত রাতে ৭ জন  আসামীকে গ্রেফতার করা হয়।  গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন ১। মোঃ সাইদুল ইসলাম, ২। মোঃ কামরুল হাসান নাইস,৩। মোঃ উমর ফারুক পারভেজ, ৪। মোঃ হাসানুর রহমান লাজু , ৫। মোঃ রাশেদ, ৬। মোঃ আব্দুল কুদ্দুস রয়েল ,  ৭। মোঃ লুৎফর রহমান মানিক , গত ১৫/০৮/২০১৯ তারিখ রাতে আটোয়ারী থানাধীন মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় তলায় অবস্থত আই,এল,সি কম্পিউটার ল্যাবের পিছনের থাই গ্লাস খুলে জানালার গ্রীল কেটে অজ্ঞাত নামা চোরেরা চার্জারসহ ২১ টি ল্যাপটপ ও ১টি  এলসিডি মনিটর চুরি করে নিয়ে যায়।  চুরির বিষয়টি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পরদিন ১৬/০৮/২০১৯ তারিখ বিকালে জানতে পারে। উক্ত ঘটনায় আটোয়ারী থানায় গত ১৭/০৮/২০১৯ তারিখে মামলা নং-০৯, ধারা-৪৫৭/৩৮০ পেনাল কোড রুজু হয়।  আটোয়ারী থানা পুলিশ চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধার ও আসামীদের গ্রেফতারের জন্য গোয়েন্দা তৎপরতা বৃদ্ধি করে ও পার্শ্ববর্তী থানা সমূহে অনুসন্ধান অব্যাহত রাখে।
গত ২০/০৮/২০১৯ তারিখে আটোয়ারী থানা এলাকার মোঃ সাইদুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তিকে  তার বসত বাড়ী হতে গ্রেফতার করে তার বাড়ী হতে চার্জার সহ ৬টি  ল্যাপটপ ও ১টি এলসিডি মনিটর উদ্ধার করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে উক্ত চুরির সঙ্গে সম্পর্কিত অন্যান্য আসামীদের মধ্যে ২ জনের হেফাজত হতে চার্জার সহ ০৯টি ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ঠাকুরগাঁও জেলা সদর হতে ঠাকুরগাঁও ডিবি পুলিশের সহায়তায় ০৩ জন আসামীকে গ্রেফতার পূর্বক ০৬টি চার্জারসহ ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়। গত ১৫/০৮/২০১৯ তারিখ সন্ধ্যা ০৭.২০ ঘটিকার দিকে আসামী সাইদুল সহ অন্যান্যরা  ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে কয়েজন পাহারার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকে। তাদের মধ্যে কয়েক জন দোতলায় উঠে আই,এল,সি ল্যাবের থাই গ্লাস খুলে জানালার গ্রিল কেটে ভিতরে প্রবেশ করে চুরি যাওয়া মালামাল গুলি বাহিরে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে ২১ টি ল্যাপটপ ও ০১টি এলসিডি মনিটর  তারা সঙ্গে আনা বস্তায় ভরে আলাদা ভাবে বাড়িতে রেখে দেয়। এ বিষয়ে পঞ্চগড় পুলিশ সুপার কর্তৃক প্রেস ব্রিফিং এর আয়োজন করা হয়।
 অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, (সদর সার্কেল) এর নেতৃত্বে অফিসার ইনচার্জ আটোয়ারী সহ তদন্তকারী কর্মকর্তা ও অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা নিবিড় অভিযান চালিয়ে আসামীদের গ্রেফতার সহ চুরি যাওয়া সকল আলামত উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। অন্যান্য পলাতক আসামীদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত আছে।