(দিনাজপুর২৪.কম) লিবীয় উপকূলে মানবপাচারের সময় নৌকা ডুবে মোট ২৪ জন বাংলাদেশি নিহত হওয়ার তথ্য জানা গেছে। ওই নৌকাতে প্রায় ৫০০ জন বিদেশগামী বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের মধ্যে বাংলাদেশি ছিলেন প্রায় ৭৯ জন। যার মধ্যে ৫৪ জন জীবিত থাকার তথ্য পাওয়া গেছে। লিবিয়ার বাংলাদেশী দূতাবাসের শ্রম বিষয়ক কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম শনিবার রাতে মুঠোফোনে জানান, লিবিয়ার নৌকা ডুবির ঘটনায় শনিবার ১৮ জন বাংলাদেশি নিহত হওয়ার তথ্য জানা গেছে। এর আগে গত শুক্রবার ৬ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী মোট ২৪ জন বাংলাদেশি নৌকাডুবির ঘটনায় নিহত হন। তিনি আরও জানান, এখনও ৫৪ জন বাংলাদেশি বেঁচে আছেন। যারা বেঁচে আছেন তারা সকলেই লিবীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে রয়েছেন। তাদেরকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। লিবীয় কর্তৃপক্ষ দেশটিতে কোনো কূটনীতিককে প্রবেশের অনুমতি দিচ্ছে না। এতে করে বাংলাদেশিদের উদ্ধার প্রক্রিয়া খুবই জটিল হয়ে পড়েছে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, নিহতদের মরদেহ বাংলাদেশে আনার সম্ভাবনা ক্ষীণ। কেননা, গৃহযুদ্ধ চলায় দেশটির কর্তৃপক্ষ নিজ দায়িত্বে নিহতদের দাফন করছেন। যাতে দেশের বাইরে এই বিষয়ে কোনো তথ্য পাচার না হয়।

এদিকে, লিবীয় ঘটনায় ভুক্তভোগীদের সহায়তা করতে একটি হেলপ ডেস্ক চালু করা হয়েছে। যে কেউ প্রয়োজনে যোগাযোগ করতে পারেন। লিবিয়ায় বাংলাদেশী দূতাবাসের শ্রম বিষয়ক কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম, মুঠোফোন ০০২১৮৯১৬৯৯৪২০২।

জানা গেছে, ডুবে যাওয়া ওই নৌকাটিতে বাংলাদেশ, পাকিস্তান, সিরিয়া, মরক্কোসহ সাব-সাহারা অঞ্চলের নাগরিকরা ছিলেন। -ডেস্ক