-সংগ্রহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) নুসরাত জাহান রাফির জানাজায় অংশ নিতে আত্মীয়-স্বজন বন্ধু পাড়া-প্রতিবেশি সহ সোনাগাজীর সর্বস্তরের মানুষের ঢল নেমেছে সোনাগাজীতে। বৃহস্পতিবার বিকাল ৫ টায় রাফির লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্স এসে পৌছায় সোনাগাজীর বাড়িতে। এসময় স্বজনদের কান্না আর সর্বস্তরের মানুষের ক্ষোভ চোখে পড়েছে সর্বত্র। নিকটাত্মীয়দের শেষবারের মতো এক নজর দেখিয়ে বিদায় দেয়া হয় নুসরাত রাফিকে।

জানাজার নামাজের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছিল সোনাগাজী মডেল ছাবের পাইলট হাইস্কুল মাঠ। সন্ধ্যা ৬ টায় হাজারো মানুষের উপস্থিতিতে সোনাগাজী মডেল ছাবের পাইলট হাইস্কুল মাঠে তার জানাজা নামাজ সম্পন্ন হয়। জানাজা শেষে নুসরাতকে তার পারিবারিক করররস্থানে দাদীর কবরের পাশে দাফন করা হয়।

জানাজায় সর্বস্তরের মানুষ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা, জেলা ও উপজেলার সকল রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও ঢাকাস্থ ফেনী সমিতির নেতৃবৃন্দ।

উপস্থিত সকলে নুসরাতের খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চত করার দাবি জানান। সবার একটই দাবি আর আর যেন কাউকে এভাবে প্রাণ না দিতে হয়।

৫ দিন মৃত্যুর সাথে লড়াই করার পর বুধবার রাতে  ঢাকা মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মৃত্যু হয় নুসরাতের। আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাতকে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল ৪ দুর্বৃত্ত। -ডেস্ক