মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (দিনাজপুর২৪.কম) ভোটার তালিকায় নাম অর্ন্তরভুক্ত ও ছবি তুলতে গিয়ে শনিবার দুপুরে (২৯ আগস্ট) নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার নাউতারা ইউনিয়নের ভারতীয় নাগরিক কালু দাস(৩৫) আটক হয়েছে। এ সময় তাকে আশ্রয় দেয়ার অপরাধে ওই ইউনিয়নের সাতজান গ্রামের অনিল দাসের ছেলে বিজয় দাস (৫৫) কেও পুলিশ আটক করে। আটককৃত ভারতীয় নাগরিক জলপাইগুড়ি জেলার ময়নাগুড়ি থানার বাঁশদহ গ্রামের মৃত মাতোয়াল দাসের ছেলে।
নাউতারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন জানান, তার ইউনিয়নের ভোটার তালিকা প্রনয়নে হাল নাগাদ কার্য্যক্রম চলছে ইউনিয়ন পরিষদে। এখানে নির্বাচন অফিস কর্তৃক মাঠকর্মী ও সুপারভাইজারগণ ভোটার তালিকার হালনাহাদের কাজ করছে। ভোটার তালিকায় নাম ও ছবি তুলে জাতীয় পরিচয়পত্র পেতে হলে জন্মনিবন্ধন প্রয়োজন হয়। ইউপি চেয়ারম্যান জানান, ভারতীয় ওই ব্যাক্তি  জন্ম নিবন্ধনের কাগজ করতে তার কাছে এলে  জিজ্ঞাসাবাদে বিষয়টি প্রকাশ হয়ে পড়ে। বিষয়টি ডিমলা থানায় অবগত করলে পুলিশ এসে ভারতীয় নাগরিক সহ তার দুর সর্ম্পকের আতœীয় একই ইউনিয়নের সাতজান গ্রামের বাসিন্দা বিজয় দাসকেও আটক করে।
ভারতীয় নাগরিক কালু দাস আটকের পর জানায়, সে গত ৫ বছর ধরে বাংলাদেশে রয়েছে এবং দিনমজুরী করে। ভারতে তার স্ত্রী লক্ষ্মীদাসের সাথে পারিবারিক কলহে  স্ত্রী তার বিরুদ্ধে মামলা করে। এতে সে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে এবং দুর সর্ম্পকের আতœীয় বিজয় দাসের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। এখানে সে দিন মজুরী কাজ করতো। ডিমলা থানার সিনিয়র সাব-ইন্সপেক্টর সাহবুদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন তাদের বিরুদ্ধে সু-নির্দিষ্ট আইনে মামলা দায়ের করা হবে