(দিনাজপুর২৪.কম) আমার দেশ এর সম্পাদক মাহমুদুর রহমান বলেছেন, মামলা দায়েরের ক্ষেত্রে নির্লজ্জতার একটি সীমা থাকা দরকার। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার সিএমএম আদালতে পুলিশ কাস্টডিতে থেকে পুলিশের কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে দায়ের করা একটি মামলার শুনানিকালে তিনি একথা বলেন। ২০১০ সালের ২ জুন ভোরবেলা কারওয়ানবাজারে আমার দেশ কার্যালয় থেকে মাহমুদুর রহমানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার দু’দিন পর মামলাটি দায়ের করে। মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ তাকে প্রিজনভ্যানে করে আদালতে হাজির করার সময় তাকে ছাড়িয়ে নেয়ার চেস্টা করে কিছু আইনজীবী ও তার সমর্থকরা । মাহমুদুর রহমান এসময় তাকে ছাড়িয়ে নিতে তাদের উস্কানি দিয়েছেন এবং পুলিশের কাজে বাধা দিয়েছেন। মামলায় চার্জ গঠনের জন্য মঙ্গলবার শুনানির দিন ধার্য ছিল। প্রথম অতিরিক্তি মুখ্য মহানগর হাকিম আলমগীর কবির রাজের আদালতে এই মামলার শুনানি হয়।
এসময় মাহমুদুর রহমান আদালতে বলেন, এই মামলা দায়েরের দু’দিন আগেই আমাকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশের দায়িত্ব হল আমাকে নিরাপদে আদালতে হাজির করা । পুলিশের কাজে বাধা কিংবা আসামি ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা বা উস্কানি যদি হয়ে থাকে তবে পুলিশের সহযোগিতা লাগবে। কিন্তু কোন পুলিশ এ মামলায় আসামি হয়নি। কোন পুলিশ আমাকে উস্কানি দিতে সহযোগিতা করেছে তার কোন নাম নেই ।পুলিশ কাস্টডিতে থেকে পুলিশের সহযোগিতা ছাড়া বাইরের কাউকে আমি কিভাবে উস্কানি দিলাম। তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা উল্লেখ করে তিনি বলেন, মামলা দায়েরের ক্ষেত্রে নির্লজ্জতার একটা সীমা থাকা উচিত। তিনি আদালতের কাছে ন্যায় বিচার দাবি করেন।
এই মামলার ব্যাপারে উচ্চ আদালতের আদেশের কপি আসামি পক্ষের আইনজীবীদের আগামী শুনানির আগে আদালতে দাখিলের নিদের্শ দিয়ে আংশিক শুনানি শেষে আগামী ১৮ অক্টোবর মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়।
মঙ্গলবার শুনানি আদালতে উপস্থিত ছিলেন জেলা বারের সাবেক সভাপতি সানাউল্লাহ মিয়া, বর্তমান সভাপতি মাসুদ আহমেদ তালুকদার, অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন মেজবাহ প্রমুখ। -(ডেস্ক)