(দিনাজপুর২৪.কম) দশম সংসদ নির্বাচন বর্জন করলেও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা।শনিবার রাজধানীর সিদ্বেশ্বরী গার্লস কলেজে ভোটার তালিকা নিবন্ধন কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের একথা বলেন।

তিনি বলেন, “আমি বিশ্বাস করি, আমাদের প্রতি বিএনপির আস্থা রয়েছে এবং তারা আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে।” নির্দলীয় সরকারের অধীনে না হওয়ায় বিএনপি দশম সংসদ নির্বাচন বর্জন করেছিল। পরবর্তী নির্বাচনে ওই প্রশ্নের সুরাহা এখনও হয়নি। তবে বিএনপি এবার নির্বাচনকালীন ‘সহায়ক সরকারের’ দাবি তুলেছে।
বর্তমান সরকারের অধীনে নির্বাচন করতে অনীহ বিএনপি নির্বাচন কমিশনের চলমান সংলাপে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে।

চলতি বছরই সিইসির দায়িত্ব নেয়া নূরুল হুদা বলেন, “ইসির সংলাপে অংশ নেয়া মানেই তারা নির্বাচনেও অংশ নেবে, আমাদের কাজের ওপর তাদের আস্থা রয়েছে।”
এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, সবগুলো রজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ শেষে সুপারিশগুলো পুস্তিকা আকারে প্রকাশ করা হবে।

“ইসির আওতায় আছে এমন প্রস্তাবগুলোর বিষয়ে আমরা বিবেচনা করব। সাংবিধানিক বিষয়গুলো নিয়ে পরবর্তী করণীয় ঠিক করতে কমিশন নিজেরা বসবে। তবে সব ধরনের সুপারিশ সংলাপে অংশ নেওয়া দল ও সরকারের কাছে পাঠানো হবে।”

আগামীকাল রোববার ইসির চলমান সংলাপে বিএনপি অংশ নেয়ার কথা জানালেও এই নির্বাচন কমিশন নিয়ে সমালোচনাও করে যাচ্ছে বিএনপি। -ডেস্ক