1. dinajpur24@gmail.com : admin :
  2. erwinhigh@hidebox.org : adriannenaumann :
  3. dinajpur24@gmail.com : akashpcs :
  4. self@unliwalk.biz : brandymcguinness :
  5. ChristineTrent91@basic.intained.com : christinetrent4 :
  6. rosettaogren3451@dvd.dns-cloud.net : darrinsmalley71 :
  7. Dinah_Pirkle28@lovemail.top : dinahpirkle35 :
  8. emmie@a.get-bitcoins.online : earnestinemachad :
  9. vandagullettezqsl@yahoo.com : gastonsugerman9 :
  10. cruz.sill.u.s.t.ra.t.eo91.811.4@gmail.com : howardb00686322 :
  11. azegovvasudev@mail.ru : latricebohr8 :
  12. corinehockensmith409@gay.theworkpc.com : meaganfeldman5 :
  13. kenmacdonald@hidebox.org : moset2566069 :
  14. news@dinajpur24.com : nalam :
  15. marianne@e.linklist.club : noblestepp6504 :
  16. NonaShenton@miss.kellergy.com : nonashenton3144 :
  17. armandowray@freundin.ru : normamedlock :
  18. rubyfdb1f@mail.ru : paulinajarman2 :
  19. vaughnfrodsham2412@456.dns-cloud.net : reneseward95 :
  20. Roosevelt_Fontenot@speaker.buypbn.com : rooseveltfonteno :
  21. Sonya.Hite@g.dietingadvise.club : sonya48q5311114 :
  22. gorizontowrostislaw@mail.ru : spencer0759 :
  23. jcsuave@yahoo.com : vaniabarkley :
মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ০৫:০৩ অপরাহ্ন
নোটিশ :
নতুন রুপে আসছে দিনাজপুর২৪.কম! ২০১০ সাল থেকে উত্তরবঙ্গের পুরনো নিউজ পোর্টালটির জন্য দেশব্যাপী সাংবাদিক, বিজ্ঞাপনদাতা প্রয়োজন। সারাদেশে সংবাদকর্মী নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা এখনই প্রয়োজনীয় জীবন বৃত্তান্ত সহ সিভি dinajpur24@gmail.com এ ইমেইলে পাঠান।

নারায়ণগঞ্জবাসী উপযুক্ত জবাব দিয়েছে

  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০১৬
  • ২ বার পঠিত

pm-iv-dinajpur24(দিনাজপুর২৪.কম) আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নারায়ণগঞ্জের সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে বিএনপির অভিযোগের উপযুক্ত জবাব দিয়েছে নারায়ণগঞ্জের জনগণ। সকলের সহযোগিতায় নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়েছে। এখন বিএনপি আর কোনো কথা খুঁজে পাচ্ছে না। এ কারণে বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি তুলছে। গতকাল সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নবনির্বাচিত মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এসব কথা বলেন। আইভীর সঙ্গে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও ছিলেন। তাদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন। বলেন, পরিবর্তন হওয়া ভালো তবে নারায়ণগঞ্জের জনগণ বুঝতে পেরেছে সরকার পরিবর্তন হলে উন্নয়নের ধারা ব্যাহত হয়। তাই আবারও সরকারি দলের প্রার্থীকে জয়ী করেছেন। তিনি নারায়ণগঞ্জবাসী, দলের নেতাকর্মী, নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, প্রশাসনের কর্মকর্তারা শুধু নির্দেশ চায়। আমার একটা মাত্র নির্দেশ ছিল, সেটা হল ভোট সুষ্ঠু হতে হবে। যেন সাধারণ মানুষ নিরাপদে কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারে। নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সকলে মিলে কাজ করেছে। ভোটারদের মধ্যেও ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা গেছে। বিশেষ করে নারী ভোটারের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়। যেসব মানুষ ঠিকমতো চলাচল করতে পারে না তারাও এসেছে আইভীকে একটা ভোট দেয়ার জন্য। তিনি বলেন, নির্বাচন যে সুষ্ঠুু হতে পারে তা আওয়ামী লীগ প্রমাণ করেছে। আমাদের সময়ে প্রত্যেকটা নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে। জনগণ যাকে ভোট দিয়েছে তারাই নির্বাচিত হয়েছে। যে ফল হয়েছে আমরা তা মেনে নিয়েছি। তারা এত দিন যে অভিযোগ করে আসছিল এর উপযুক্ত জবাব নারায়ণগঞ্জবাসী দিয়ে দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, পরিবর্তন হলে কী হয় তা ২০০১ সালের নির্বাচনের পর বোঝা গেছে। আগের সরকারে আমরা যা শুরু করেছিলাম তারা ক্ষমতায় এসে তা বন্ধ করে দিয়েছিল। অত্যাচার নির্যাতনের স্টিম রোলার তারা চালাতে শুরু করেছিল।
তিনি বলেন, বিএনপির জন্মটাই হলো অবৈধ ক্ষমতা দখলের মধ্যদিয়ে। জিয়াউর রহমান ক্ষমতা দখল করেছিল মার্শাল ল’ দিয়ে। অবৈধভাবে রাষ্ট্রপতি হলেন। ক্ষমতায় এসে ‘হ্যাঁ’ ‘না’ ভোট। ’৭৯ সালে এসে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন করলেন। শতভাগের বেশি ভোট পড়ে গেল এ নির্বাচনে। কারচুপির নমুনাটা কোথা থেকে শুরু তা মানুষ দেখেছে। ’৭৯ সালে জাতীয় নির্বাচনেও কারচুপি করে। নির্বাচনটা ছিল ছকবাঁধা। আওয়ামী লীগ কয়টা সিট পাবে, অন্য দল কয়টা পাবে তার ছক করা ছিল। ভোটচুরি করে তাদের যাত্রা শুরু। ’৯৬ সালের ১৫ই ফেবু্রয়ারির নির্বাচন, মাগুরার নির্বাচন, মিরপুরে পুনর্নির্বাচন, তেজগাঁর নির্বাচন নিশ্চয় মানুষের মনে আছে। কোনো ভোটার ভোট কেন্দ্রে যেতে পারেনি। ভোটারই তো নেই। কোনো প্রার্থীর এজেন্টও থাকতে দেয়নি। ১৫ই ফেব্রুয়ারির নির্বাচনের পর ভোটচুরির অপবাদ নিয়ে খালেদা জিয়াকে পদত্যাগ করতে হয়েছিল। জাতির কাছে এরা মুখ দেখায় কীভাবে। এদেশের মানুষই বা এদের ভোট দেয় কীভাবে। যারা একের পর এক এভাবে অপরাধ করে গেছে।
তিনি বলেন, সেই ২০১৫ সালের জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত তারা একটানা মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করলো। গাড়ি লঞ্চ, রেল কোনো কিছু বাদ গেলো না। আমরা কষ্ট করে গাড়ি কিনি, রেল কিনি আর তারা পোড়ায়। আওয়ামী লীগ কিনে জনগণ চলাচল করবে আর তারা পুড়িয়ে দেয় এটাই তাদের কাজ। তারা সরকারে থাকলে মানুষকে কষ্ট দেয়, আর বিরোধী দলে থাকলে মানুষ পোড়ায়। তাহলে তাদের বিরুদ্ধে মামলা হবে না কেন। এদের আবার ভোট চাওয়ার অধিকারটা কোথায়? তাদের মুখের ওপর বলে দেয়া উচিত আপনাদের সেই অধিকারটা কই? তাদের যে মানুষ ধরে ধরে পোড়ায় না সেটাই আল্লাহর কাছে শুকরিয়া।
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, তিনি এতিমের টাকা মেরে খেয়েছেন এখন মামলায় লড়তেও ভয় পাচ্ছেন। অন্তত ২০০ বার মামলার দিন পিছিয়ে কালক্ষেপণ করেছেন। এর মানে আসলেই তিনি এতিমের টাকা মেরেছেন। ক্ষমতায় থাকাকালে তার দুই ছেলেও দুর্নীতি করেছে। বিদেশের আদালতে তাদের নামে মামলা হয়েছে। এমনকি তার ছেলের সাজাও হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে বলেন, আমি সারা দেশের উন্নয়ন করছি। আমার কাছে উন্নয়নের দাবি দিতে হবে না। বলা লাগবে না। আরও যাতে ভালোভাবে হয় সে ব্যবস্থা নিচ্ছি। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক চার লেনের হয়ে গেছে। পদ্মা সেতু আমরা করছি। প্রত্যেক এলাকায় যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন করছি। শীতলক্ষ্যা নদীতে সেতু নির্মাণে স্থানীয় নেতারা প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন, সেতু নির্মাণের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এর প্রকল্প একনেকে গেলেই তা পাস হবে। তিনি বলেন, সারা বাংলাদেশে আমরা একটা যোগাযোগ নেটওয়ার্ক গড়ে তুলছি। আগে নারায়ণগঞ্জ থেকে আগে আসতে কত সময় লাগতো, এখন কত সময় লাগে? উন্নয়নের জন্য আমার প্রতি দাবি করা লাগবে না। যেহেতু আইভী নির্বাচিত হয়েছে তাই উন্নয়নের ধারাটা অব্যাহত থাকবে। উন্নয়নের কাজগুলো দ্রুত সম্পন্ন হবে আরও নতুন নতুন প্রকল্প হাতে নেয়া যাবে। নবনির্বাচিত মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী সংক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়ায় তার জয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং সকল মুক্তিযোদ্ধাকে উৎসর্গ করেন। একই সঙ্গে দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন এবং নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করার সুযোগ দেয়ায় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। আইভী প্রধানমন্ত্রীর পা ছুঁয়ে সালাম করেন এবং দোয়া চান। এ সময় প্রধানমন্ত্রী আইভীকে জড়িয়ে ধরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য মতিয়া চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মণি, আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন, মুহিবুল হক চৌধুরী নওফেলসহ কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। -ডেস্ক

নিউজট শেয়ার করুন..

এই ক্যাটাগরির আরো খবর