(দিনাজপুর২৪.কম)টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ভারতের হয়ে সবচেয়ে জোরে বল করে সাড়া ফেলে দিয়েছেন তরুণ পেসার নভদীপ সাইনি। গেল মঙ্গলবার ইন্দোরে শ্রীলংকার বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ঘণ্টায় ১৫০ কিলোমিটারের কাছাকাছি গতিতে বল করেন তিনি। এরপর তাকে এখন ভারতের ‘শোয়েব আখতার’ বলছেন সোশ্যাল অ্যাক্টিভিস্টরা।

ম্যাচে ৪ ওভার বল করে ১৮ রান খরচায় ২ উইকেট শিকার করেন নভদীপ। যার মধ্যে রয়েছে ১৩টি ডট বল। এ বোলিং স্পেলে ওশাদা ফার্নান্দোকে ঘণ্টায় ১৫০ কিলোমিটার জোরে বল করেন তিনি।

এর খানিক আগে ১৪৮ কিলোমিটার গতিতে লংকান ওপেনার ধানুষ্কা গুণাথিলাকাকে বোল্ড করেন সাইনি। এর পর থেকেই ভারতীয় ক্রিকেটে আলোচনার কেন্দ্রে ডানহাতি এ পেসার।

ম্যাচ জয়ের পর নিজের বোলিং নিয়ে নভদীপ জানিয়েছেন, সাদা ও লাল-দুই বলেই এখন আমি ধীরে ধীরে আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠছি।

দুর্দান্ত বোলিংয়ের সুবাদে ম্যাচসেরাও হয়েছেন তিনি। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণে ২৭ বছর বয়সী পেসারই এখন ভারতের দ্রুততম বোলার।

মেন ইন ব্লুদের হয়ে এখন পর্যন্ত ১টি ওয়ানডে এবং ৬টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন নভদীপ। ওডিআইয়ে ২টি ও টি-টোয়েন্টিতে সংগ্রহ করেছেন ৮ উইকেট। এছাড়া ২০১৯ সালে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর হয়ে আইপিএলে অভিষেক হয় তার। সেই মৌসুমে ১৩ ম্যাচে ১১ উইকেট নেন তিনি।

বিশ্বের সবচেয়ে জোরে বল করার নজির পাকিস্তানের কিংবদন্তি স্পিডস্টার শোয়েব আখতারের। ২০০৩ সালে বিশ্বকাপের ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ঘণ্টায় ১৬১.৩ কিলোমিটার গতিতে বল ছুড়েন তিনি। এক অর্থে সেটি ছিল আগুনের গোলা।

তথ্যসূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া।