(দিনাজপুর২৪.কম) হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদকসহ মূর্তি চোর চক্রের ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার গভীর রাতে উপজেলার কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নের ইমামবাড়ী এলাকার এক নির্জন স্থান থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতির বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, নবীগঞ্জ পৌর এলাকার তিমিরপুর গ্রামের আশরাফ উল্লাহর ছেলে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান (২৭), আবু মিয়ার ছেলে আলী হোসেন (২৫), আব্দুল মালিকের ছেলে এমকে রাহুল (২৮) ও রাজনগর গ্রামের আশবদ উল্লাহর ছেলে সুরুজ আলী (২৫)।

পুলিশ জানায়, সম্প্রতি উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের কয়েকটি মন্দিরে চুরির ঘটনায় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের মাঝে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। মূর্তি চোর চক্রকে ধরতে তৎপরতা চালায় পুলিশ। দফায় দফায় বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হয়। সোমবার গভীর রাতে ইমামবাড়ী এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে ডাকাতদল গোপন সূত্রে এমন খবর পায় পুলিশ। এর প্রেক্ষিতে থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে একটি নির্জন স্থান থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করে। এ সময় তাদের সাথে থাকা বিষ্ণু মুর্তি, হাতুড়ি, ধাড়ালো ছুরিসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। থানার এসআই শামছুল ইসলাম বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে ডাকাতির মামলা দায়ের করেছেন। এদিকে মূর্তি চোর চক্রকে গ্রেফতারের খবরে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

এ ব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মূর্তি চোর চক্রকে আটক করা হয়েছে। তারা ইমামবাড়ী এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল এমন সময় ডাকাতির সরঞ্জাম ও অস্ত্রসহ তাদেরকে আটক করা হয়। আটককৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকারোক্তি দিয়েছে মূর্তি চুরির সাথে তাদের সম্পৃক্ততা রয়েছে এবং তাদের গুরুদের নামও বলেছে।-ডেস্ক