(দিনাজপুর২৪.কম) ১৪ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন পত্নীতলা (বিজিবির) অধীনস্থ কালুপাড়া বিওপির বাদদিঘী এলাকায় ও শীতলমাঠ বিওপির কুমড়াইল এলাকায় বুধবার পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে প্রায় পৌনে ৩ লক্ষ টাকা মূল্যের ৬৬০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল আটক করেছে বিজিবি টহলদল। জানা গেছে, ১৪ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন পত্নীতলা (বিজিবিন) অধীনস্থ কালুপাড়া বিওপির টহল কমান্ডার হাবিঃ মোঃ লিটনের নেতৃত্বে একটি টহলদল বুধবার সকাল আনু ১০টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সীমান্ত পিলার ২৭১/৯-এস হতে আনুঃ ৫শ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ধামইরহাট উপজেলার বাদদিঘী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১১০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল (প্রতি বোতল ১০০ মিঃ লিঃ) আটক করে। যার সিজার মূল্য ৪৪ হাজার টাকা। এ সময় বিজিবি টহল দলের উপস্থিতি টের পেয়ে চোরাকারবারীরা ফেন্সিডিল ফেলে দৌঁড়ে পালিয়ে যাওয়ায় টহল দল তাদের কাউকে আটক বা সনাক্ত করতে সক্ষম হয়নি। প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী উক্ত আটককৃত মাদকদ্রব্য ব্যাটালিয়ন সিজার ষ্টোরে জমা রেখে পরবর্তীতে জনসম্মুখে ধ্বংস করা হবে।এর আগে বুধবার ভোর রাত আনুঃ ৩টায় একই বিওপির টহল কমান্ডার নাঃ সুবেঃ মোঃ আব্দুল আজিম এর নেতৃত্বে একটি টহলদল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সীমান্ত পিলার ২৭১/৭-এস হতে আনুঃ ৪শ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বাদদিঘী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪২০ বোতল (প্রতি বোতল ১০০ মিঃ লিঃ) ভারতীয় ফেন্সিডিল আটক করে। যার সিজার মূল্য ১ লক্ষ ৬৮হাজার টাকা। এ সময় বিজিবি টহল দলের উপস্থিতি টের পেয়ে ধামইরহাট উপজেলার রুপনারায়নপুর এলাকার ধরুয়া মন্ডলের ছেলে মোঃ মিলন (৩০), মৃত-আলিম মিয়ার ছেলে মোঃ নাজমুল হোসেন (৩৫), মোঃ এনামুলের ছেলে মাহাবুল (২৬) এবং মোঃ আঃ সাত্তারের ছেলে মোঃ এরশাদুলল (২৮) নামে ৪ জন মাদক চোরাকারবারী ফেন্সিডিল ফেলে দৌঁড়ে পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করতে সক্ষম হয়নি বিজিবি। অপরদিকে একই দিন ভোর রাত আনু সাড়ে ৪টায় ১৪ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন পতœীতলা (বিজিবির) অধীনস্থ শীতলমাঠ বিওপির টহল কমান্ডার সুবেঃ মোঃ রহমত উলল্লাহর নেতৃত্বে একটি টহলদল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সীমান্ত পিলার ২৫৬ হতে আনুঃ ৫০ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে কুমড়াইল এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৩০ বোতল (প্রতি বোতল ১০০ মিঃ লিঃ) ভারতীয় ফেন্সিডিল আটক করে। যার সিজার মূল্য ৫২ হাজার টাকা। এ সময় বিজিবি টহল দলের উপস্থিতি টের পেয়ে পত্নীতলা উপজেলার কৃষ্ণপুর এলাকার মোঃ সেকেন্দার (৫০) ও মোঃ সিদ্দিক (৪০) নামে ২ জন মাদক চোরাকারবারী ফেন্সিডিল ফেলে দৌঁড়ে পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করতে সক্ষম হয়নি বিজিবি। আটককৃত ফেন্সিডিলসহ পলাতক আসামিদের বিরুদ্ধে নিকটস্থ থানায় মামলা দায়েরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে ১৪ বিজিবি পত্নীতলা ক্যাম্প সূত্রে জানা গেছে।-ডেস্ক