(দিনাজপুর২৪.কম) একাদশ জাতীয সংসদ নির্বাচনে ৩০ ডিসেম্বর নোয়াখালীর সুবর্ণচরের দুর্গম এলাকায় ভোট প্রদানকে কেন্দ্র করে এক গৃহবধূর গণধর্ষণের শিকার হওয়ার ঘটনা তদন্ত করার কথা জানিয়েছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। মঙ্গলবার (১ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর কাওরান বাজারে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক তার কার্যালয়ের কনফারেন্স হলে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই তদন্ত করার কথা জানান। নির্বাচন কেন্দ্রিক মানবাধিকার সংরক্ষণ নিয়ে তিনি সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন। ভোট দেওয়াকে কেন্দ্র করে নারীকে গণধর্ষণের বিষয়ে রিয়াজুল হক বলেন, ‌বিষয়টি গণমাধ্যমের মাধ্যমে তারা শুনেছেন। স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে কমিশন কথা বলে এ বিষয়ে পরবর্তী করণীয় ঠিক করবেন বলে জানান তিনি। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় সারাদেশ থেকে ৫২টি অভিযোগ পেয়েছে। এসব অভিযোগের বিষয়ে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্বাচন কমিশনের সচিবকে বলা হয়েছে বলেও জানান তিনি। উল্লেখ্য, গত রোববার (৩০ডিসেম্বর) রাতে উপজেলার মধ্য বাগ্যার ৮নং কলোনিতে ধানের শীষে ভোট দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়েএক গৃহবধূকে ঘর থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। ধানের শীষে ভোট দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে আওয়ামী লীগের লোকেরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হলেও পুলিশ তা নাকচ করে বলছে, পূর্ব বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে। তবে বিষয়টি অস্বীকার করেছেন সুবর্ণচর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট ওমর ফারুক। তিনি ধর্ষণের ঘটনা বিষয়ে দোষীদের আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি জানান। -ডেস্ক