(দিনাজপুর২৪.কম) অভিনেতা ও প্রযোজক আদিত্য পাঞ্চালির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন বলিউড কুইন কঙ্গনা রানাওয়াত। তাঁকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে পুলিশের কাছে জবানবন্দি দিয়েছেন এই অভিনেত্রী। শুধু তাই নয়, কঙ্গনার কাছ থেকে ১ কোটি রুপি নিয়েছে বলে অভিযোগ করেন কঙ্গনার বোন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতারের মুখোমুখি আদিত্য। গত বৃহস্পতিবার তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে মুম্বাইয়ের ভারসোভা থানার পুলিশ। অভিযুক্ত আদিত্যের নামে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬, ৩২৮, ৩৮৪, ৩৪১, ৩৪২, ৩২৩ ও ৫০ ধারায় মামলা হয়েছে।

২০১৭ সালে কঙ্গনা আদিত্যর বিরুদ্ধে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ তুলেছিলেন। সেই মামলা গাড়িয়েছে এতদূর। শোনা যাচ্ছে, যেকোনো সময় গ্রেফতার হতে পারেন এই অভিনেতা। ২০১৭ সালে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করা হলেও ধর্ষণের ঘটনাটি আসলে ঘটেছিল ১০ বছর আগে। সেক্ষেত্রে ধর্ষণ হয়েছিল কি-না তা প্রমাণ করাটা প্রায় অনিশ্চিত পুলিশের কাছে।

আদিত্য প্রথম থেকেই এটাকে মিথ্যে ধর্ষণের মামলা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। সেই সময় কঙ্গনার বিরুদ্ধে মানহানির মামলাও করেন তিনি। বুধবার আদিত্যের করা মানহানির মামলার প্রেক্ষিতে কঙ্গনা রানাওয়াত ও তাঁর বোনের নামে সমন পাঠিয়েছে আন্ধেরি আদালত। আগামী ২৬ জুলাই এই মামলার শুনানিতে তাঁদের হাজির থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। -ডেস্ক