(দিনাজপুর২৪.কম) ধর্ষণের শিকার নারীদের সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করে সমালোচনার মুখে পড়েছেন ভারতের সমাজবাদী পার্টির জ্যেষ্ঠ নেতা আজম খান। তিনি বলেছেন, যৌন-নিপীড়ন ও ধর্ষণ এড়াতে নারীদের উচিত বাড়িতে অবস্থান করা।

উত্তরপ্রদেশের রামপুরে দুই নারীকে ১৪ দুর্বৃত্তের যৌন-হয়রানির একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা ও নিন্দার ঝড় তুলেছে। এর মাঝেই উত্তরপ্রদেশের সাবেক এই মন্ত্রী বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন। গতকাল রবিবার আজম খান আরও বলেন, রামপুরের ওই ভিডিওতে বিস্মিত হওয়ার কিছু নেই। কেননা নতুন সরকার ক্ষমতা নেয়ার পর থেকে রাজ্যে প্রচুর ধর্ষণ, খুন ও ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। বুলন্দশহরের গণ-ধর্ষণের মামলার পরে, জনগণকে নিশ্চিত করা উচিত যে, তাদের বাড়ির নারীরা যতটা সম্ভব বাড়িতে থাকবেন। এছাড়া এ ধরনের লজ্জাজনক ঘটনা যেখানে ঘটে; সেসব এলাকা মেয়েদের এড়িয়ে চলা উচিত।

রামপুরের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, ১৪ দুর্বৃত্ত একটি সংকীর্ণ রাস্তায় দুই নারীকে ঘিরে ধরেছেন। ওই দুই নারীর শরীরের বিভিন্ন জায়গা স্পর্শ ও তাদেরকে ধাক্কা দিচ্ছেন। এসময় যৌন-নিপীড়ন থেকে বাঁচতে তারা (দুই নারী) চিৎকার ও কান্নাকাটি করছিলেন। তারা পালানোর চেষ্টা করলে ছেলেগুলো তাদের ওড়না টেনে ধরছিল।

পরে ওই ভিডিও নিজেরাই ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। বিষয়টিকে তারা মজা হিসেবে নেয়। আর এ ঘটনায় উত্তরপ্রদেশের নতুন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথও বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছেন। প্রতিপক্ষরা তাকে ঘায়েল করার মোক্ষম অস্ত্র হাতে পেয়ে কেউ ছাড় দিচ্ছে না।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত রাজ্যের বিধানসভার নির্বাচনে বিজেপির কাছে হেরে যায় সমাজবাদী পার্টি। এরপর থেকেই বিভিন্ন ইস্যুতে বিতর্কিত মন্তব্য করে আসছে দলটির নেতারা। সমাজবাদী পার্টির নেতা ও সাবেক মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব উত্তরপ্রদেশের নতুন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের নেতৃত্বাধীন সরকারকে আক্রমণ করে বক্তব্য দিয়ে অাসছে। -ডেস্ক

সূত্র : এনডিটিভি।