(দিনাজপুর২৪.কম) সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে বিভিন্ন স্থানে আজ মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা পালিত দেন। এসব এলাকায় মুসলমানরা ত্যাগের মহিমায় উদ্বুদ্ধ হয়ে মহান আল্লাহর উদ্দেশে পশু কোরবানি দেন।

প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে শুক্রবার লক্ষ্মীপুরের ১০টি গ্রামে আগাম ঈদুল আযহা উদযাপন করা হচ্ছে। জেলার রামগঞ্জ উপজেলার নোয়াগাঁও, জয়পুরা, বিঘা, বারো ঘরিয়া, হোটাটিয়া, শরশোই, কাঞ্চনপুর ও রায়পুর উপজেলার কলাকোপা গ্রামসহ ১০টি গ্রামে সহস্রাধীক মুসল্লী ঈদুল আযহা উদযাপন করছেন। শুক্রবার সকাল ১০টায় রামগঞ্জ উপজেলার নোয়াগাঁও বাজারের তালিমুন কোরান নুরানী মাদ্রাসা মাঠে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইমামতি করেন মাওলানা আমিনুল ইসলাম। মুসল্লিরা পৃথকভাবে স্ব স্ব ঈদগাঁ মাঠে আগাম ঈদের নামাজ আদায় করেন। মাওলানা ইসহাক (রাঃ) অনুসারী হিসেবে এসব এলাকার মানুষ পবিত্র ভূমি মক্কা ও মদিনার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে গত ৩৭ বছর যাবত ঈদসহ সব ধর্মীয় উৎসব পালন করে আসছেন।

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি : সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ঈদ উল আজহার নামায পড়লেন জেলার শতাধিক পরিবারের মুসল্লি। নামাজ শেষে দেশ ও জাতির উদ্দেশ্যে মোনাজাত করা হয়। শুক্রবার সকাল ৮টায় মৌলভীবাজার শহরের সার্কিট হাউস এলাকার আহমেদ শাবিস্তা নামক বাসার ছাদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। নামাজে বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত নারী ও পুরুষ অংশ নেয়। নামাজে ইমামতি করেন হাফেজ মাওলানা মাজেদুল হক সজীব।
এছাড়া জেলার কুলাউড়া, বড়লেখা ও শ্রীমঙ্গলেও পৃথক পৃথক ঈদের নামায আদায় করার খবর পাওয়া গেছে। আলহাজ্ব আব্দুল মাওফিক চৌধুরীর (পীর সাহেব উজান্ডি) অনুসারী হাফেজ মাজেদুল হক সজীব জানান, ৯ বছর ধরে তারা সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখেই ঈদ উল ফিতর ও ঈদ উল আজহার এই নামাজ আদায় করছেন।

চট্টগ্রাম ব্যুরো : সাতকানিয়া উপজেলার মির্জাখীল, চরতি, গাটিয়াডাঙ্গা, পটিয়া উপজেলার কালারপোল, হাইদগাঁও, মলপাড়া, বাহুলী, চন্দনাইশের কাঞ্চননগর, পশ্চিম এলাহাবাদ, পূর্ব এলাহাবাদ, মুরাদাবাদ, সাতবাড়িয়া, আনোয়ারার তৈলারদ্বীপ এলাকায় আজ ঈদ। চট্টগ্রামের এলাহাবাদ দরবার শরীফের অনুসারী পটুয়াখালীর নিশানবাড়িয়া, বাউফলের মদনপুরা, বগা, জৌতা, শাবুপুরা, ঝিলনা, কাছিপাড়া, গলাচিপা উপজেলার ডাউকা, ও কলাপাড়ার নিশানবাড়িয়া এবং বরিশালের সাগরদী এলাকার দাসকাঠী, টিয়াখালীর চৌধুরী বাড়িসহ এলাকার কয়েকশ পরিবার আজ শুক্রবার ঈদুল আজহা উদযাপন করছে। নগরীর ২৩নং ওয়ার্ডের তাজকাঠি জাহাঁগিরিয়া শাহ সুফি মমতাজিয়া জামে মসজিদ, হরিণাফুলিয়া চৌধুরীবাড়ি শাহ্ সুফি মমতাজিয়া জামে মসজিদ, জিয়া সড়ক শাহ সুফি মমতাজিয়া মসজিদে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

শরীয়তপুর : শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ঐতিহাসিক সুরেশ্বর পীরের অনুসারীরা জেলার ৪টি উপজেলার ৩০টি গ্রামে ঈদুল আজহা পালন করছে।

নোয়াখালী : কালিতারা, জয়কৃষ্ণপুর, অশ্বদিয়া ও পশ্চিম মহাদেবপুর এবং বেগমগঞ্জ উপজেলার গোপালপুর ইউপির বসন্তবাগ, চাঁদ কাশিপুর এলাকার মানুষ আজ ঈদ উদযাপন করছেন।

চাঁদপুর : চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার সাদ্রা, সমেশপুর, অলিপুর, বলাখাল, মনিহার, জাকি, প্রতাপুর, বাসারা, ফরিদগঞ্জ উপজেলার লক্ষ্মীপুর, কামতা, গল্লাক, ভুলাচোঁ, সোনাচোঁ, উভারামপুর, উটতলি, মতলব উপজেলার দশানী, মোহনপুর, পাঁচানী এবং কচুয়া ও শাহরাস্তি উপজেলার কয়েকটি গ্রামে ঈদ পালিত হচ্ছে।

বাবুগঞ্জ (বরিশাল) : বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার ওলানকাঠী এলাকার সরোয়ার খলিফার বাড়ি, খানপুরায় জাহাঙ্গীর সিকদারের বাড়ি, কেদারপুরের মান্নান হাওলাদারের বাড়ি ও মাধবপাশার আমীর দুয়ারী বাড়ির জামে মসজিদে প্রতি বছরের মতো এবারও ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাবুগঞ্জের ৫টি ইউনিয়নের ২০টি গ্রামের আড়াই হাজার পরিবার ঈদুল আজহার নামাজ ও পশুজাতি গরু, ছাগল কোরবানি দেন।

টেকেরহাট (মাদারীপুর) : সদর উপজেলার পাঁচখোলা ইউনিয়নের চরকালিকাপুর, মহিষেরচর, পূর্ব পাঁচখোলা, জাজিরা, কাতলা, তাল্লুকসহ ৩০ গ্রামে আজ ঈদ। -ডেস্ক