(দিনাজপুর২৪.কম) ২০১৫ সালের দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষার পাশের হার ৭০ দশমিক ৪৩। ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীদের পাশের হার বেশি। এবার জিপিএ ৫ পাওয়ার সংখ্যা অর্ধেকে নেমে এসেছে।  রোববার দুপুর ১টায় দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ মোঃ তোফাজ্জুর রহমান ২০১৫ সালে অনুষ্ঠিত এইচএসসি পরীক্ষার ফল ঘোষনা করেন। এবার পাশের হার ৭০ দশমিক ৪৩। ৯০ হাজার ৭২৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৮৮ হাজার ৯৮৮ জন পরীক্ষায় অংশ নেন। এর মধ্যে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন ৬২ হাজার ৬৭১ জন। এর মধ্যে ৪৬ হাজার ৫২০ জন ছাত্র ও ৪২ হাজার ৪৬৮ জন ছাত্রী। ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীদের পাশের হার বেশি। ৭২ দশমিক ৬৪ ভাগ ছাত্রী পাশ করলেও ছাত্র পাশ করেছে ৬৮ দশমিক ৪০ ভাগ।
গতবারের তুলনায় এবার জিপিএ ৫ প্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা অর্ধেকে নেমে এসেছে। জিপিএ ৫ পেয়েছেন ২ হাজার ৩৯৫ জন। এর মধ্যে ১৫০৮ ছাত্র ও ৮৮৭ জন ছাত্রী। ১৩ হাজার ৫৩৭ জন শিক্ষার্থী ১ বিষয়ে অকৃতকার্য হয়েছেন।  বিজ্ঞান ও গার্হস্থ্য অর্থনীতি বিভাগে ১৯ হাজার ২৫৬জনের মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছেন ১৩ হাজার ২০৪ জন। পাশের হার ৬৮ দশমিক ৫৭ভাগ। এর মধ্যে ৭ হাজার ৯৪১ জন ছাত্র ও ৫ হাজার ২৬৩ জন ছাত্রী। মানবিক, ইসলামিক স্টাডিজ ও সংগীত বিভাগে ৫৪ হাজার ৪৮৫ জনের মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৩৭ হাজার ৩৪৮ জন পরীক্ষার্থী। পাশের হার ৬৮ দশমিক ৫৫। এর মধ্যে ১৫ হাজার ৫৬৩ জন ছাত্র ও ২১ হাজার ৭৮৫ জন ছাত্রী। বিজনেস স্টাডিজ বিভাগে ১৫ হাজার ২৪৭ জনের মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছেন ১২ হাজার ১১৯ জন পরীক্ষার্থী। পাশের হার ৭৯ দশমিক ৪৮। এর মধ্যে ৮ হাজার ৩১৮ জন ছাত্র ও ৩ হাজার ৮০১ জন ছাত্রী।
ফলাফল ঘোষনার সময় শিক্ষা বোর্ডের উপ-সচিব ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোঃ হারুনুর রশিদ মন্ডল ও মোঃ আরিফুল ইসলাম এবং বিদ্যালয় উপ-পরিদর্শক মোঃ আলতাফ হোসেন প্রমুখ।