1. dinajpur24@gmail.com : admin :
  2. dinajpur24@gmail.com : akashpcs :
  3. self@unliwalk.biz : brandymcguinness :
  4. ChristineTrent91@basic.intained.com : christinetrent4 :
  5. Dinah_Pirkle28@lovemail.top : dinahpirkle35 :
  6. cruz.sill.u.s.t.ra.t.eo91.811.4@gmail.com : howardb00686322 :
  7. azegovvasudev@mail.ru : latricebohr8 :
  8. kenmacdonald@hidebox.org : moset2566069 :
  9. news@dinajpur24.com : nalam :
  10. NonaShenton@miss.kellergy.com : nonashenton3144 :
  11. vaughnfrodsham2412@456.dns-cloud.net : reneseward95 :
  12. Sonya.Hite@g.dietingadvise.club : sonya48q5311114 :
  13. jcsuave@yahoo.com : vaniabarkley :
সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৫:৩৭ অপরাহ্ন
নোটিশ :
নতুন রুপে আসছে দিনাজপুর২৪.কম! ২০১০ সাল থেকে উত্তরবঙ্গের পুরনো নিউজ পোর্টালটির জন্য দেশব্যাপী সাংবাদিক, বিজ্ঞাপনদাতা প্রয়োজন। সারাদেশে সংবাদকর্মী নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা এখনই প্রয়োজনীয় জীবন বৃত্তান্ত সহ সিভি dinajpur24@gmail.com এ ইমেইলে পাঠান।

দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডে জেএসসি পরীক্ষার পাশের হার ৯২ দশমিক ৯৯ শতাংশ

  • আপডেট সময় : শনিবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৬
  • ০ বার পঠিত

dinajpur education board logo-dinajpur24(দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত ২০১৬ সালের জেএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। গড় পাশের হার ৯২ দশমিক ৯৯ শতাংশ। বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১২টায় দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তোফাজ্জুর রহমান তার কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন। গত বারের চেয়ে এবারে পাশের হার ও জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা উভয়ই বেড়েছে। গতবার ছিল পাশের হার ছিল ৯১ দশমিক ৫২ শতাংশ।
দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত ২০১৬ সালের জেএসসি পরীক্ষায় ২ লাখ ১৬ হাজার ৭২১ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২ লাখ ১ হাজার ৫২৫ জন উত্তীর্ণ হয়েছে। এর মধ্যে ছাত্র ৯৭ হাজার ১৪৪ জন ও ছাত্রী ১ লাখ ৪ হাজার ৩৮১ জন। গড় পাশের হার ৯২ দশমিক ৯৯ শতাংশ। ফলাফলে এবারেও ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীরা সামান্য এগিয়ে রয়েছে। ছাত্রদের পাশের হার ৯২.৫৪ শতাংশ ও ছাত্রীদের পাশের হার ৯৩.৪১ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৭ হাজার ৮৯ জন। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১৯ হাজার ১৪৩ জন।
তবে গতবারের চেয়ে এবারে শতভাগ পাশকৃত বিদ্যালয়ের সংখ্যা বেড়েছে। এবারে শতভাগ পাশকৃত বিদ্যালয়ের সংখ্যা ৮৯৯টি। যা গতবারে ছিল ৮০২টি। অপরদিকে গতবার কেউই পাশ করেনি এমন (শূন্য ফলাফলপ্রাপ্ত) বিদ্যালয়ের সংখ্যা ৬টি যা গতবারে ছিল ১৬টি। এবারে পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা ২৫০টি ও অংশগ্রহনকারী বিদ্যালয়ের সংখ্যা ৩১৪২টি।
ফলাফল প্রকাশ করে দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তোফাজ্জুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, বিগত বছরের তুলনায় এবার ফলাফল কিছুটা ভাল হয়েছে। এবার পাশের হার ও জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যা বেড়েছে। গত বছর জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১৯ হাজার ১৪৩ জন এবং এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৭ হাজার ৮৯ জন। তিনি বলেন, এবারে কেইই পাশ করেনি অর্থাৎ শূন্য ফলাফল প্রাপ্ত বিদ্যালয়ের ৬টি। অপরদিকে শতভাগ পাশকৃত বিদ্যালয়ের সংখ্যা বেড়েছে। এবারে শতভাগ পাশকৃত বিদ্যালয় ৮৯৯টি যা গতবারে ছিল মাত্র ৮০২টি।
উল্লেখ্য, ২০১০ সালে জেএসসি পরীক্ষায় ১ লাখ ২১ হাজার ৫৮২ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহন করে উত্তীর্ণ হয় ৭৫ হাজার ৬০১ জন এবং পাশের হার ছিল ৬২.১৮ ভাগ ও জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৭৬৩ জন। ২০১১ সালে ১ লাখ ৬৫ হাজার ৮৯৮ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১ লাখ ৩৯ হাজার ৯৪৩ জন উত্তীর্ণ হয়। পাশের হার ছিল ৮৪.৩৫ ভাগ ও জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৩ হাজার ৬৪৫ জন। ২০১২ সালে ১ লাখ ৭৩ হাজার ৭৮৬ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে উত্তীর্ণ হয়েছিল ১ লাখ ৪৭ হাজার ৫০৫ জন। পাশের হার ছিল ৮৪.৮৮ ভাগ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৪ হাজার ৫৩৪ জন। ২০১৩ সালের ১ লাখ ৭৮ হাজার ৫৮৮ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে উত্তীর্ণ হয়েছিল ১ লাখ ৫৫ হাজার ৪৭৩ জন। গড় পাশের হার ৮৮.৯১ ভাগ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছিল  ১৫ হাজার ৮৩৬ জন। ২০১৪ সালে ১ লাখ ৯৮ হাজার ৫০৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১ লাখ ৭৫ হাজার ৮১০ পরীক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়। পাশের হার ছিল ৯০.১০ ভাগ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১৪ হাজার ৪২০ জন। ২০১৫ সালে ২ লাখ ১৩ হাজার ৮১৩ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১ লাখ ৯৫ হাজার ৬৮২ জন উত্তীর্ণ হয়। গড় পাশের হার ছিল ৯১ দশমিক ৫২ শতাংশ ও জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১৯ হাজার ১৪৩ জন।
২০১০, ২০১১, ২০১২, ২০১৩ ও ২০১৪, ২০১৫ সালের তুলনায় ২০১৬ সালে গড় পাশের হার বেড়েছে। অপরদিকে ২০১০ সালে শতভাগ পাশকৃত বিদ্যালয়ের সংখ্যা ছিল ৪৭টি, ২০১১ সালে ২৪২টি, ২০১২ সালে ৪৭৬টি, ২০১৩ সালে ৫০৫টি, ২০১৪ সালে ৮২৯টি, ২০১৫ সালে ৮০২টি এবং ২০১৬ সালে ৮৯৯টি বিদ্যালয়।
ফলাফল প্রকাশের সময় দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম, উপ-পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক হারুনুর রশিদ, সহকারী পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোঃ রাকিবুল ইসলাম, বিদ্যালয় পরিদর্শক রবীন্দ্র নারায়ন ভট্টাচার্যসহ অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, দিনাজপুরে শিক্ষাবোর্ডর অধীনে সপ্তমবারের মত জেএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নিউজট শেয়ার করুন..

এই ক্যাটাগরির আরো খবর