মাহবুবুল হক খান (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ আবু রায়হান মিঞা বলেছেন, জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের মূল উদ্দেশ্য মৎস্য সম্পদের বিপুল সম্ভাবনাকে কাজে লাগিয়ে দেশের অর্থনৈতিক ভিতকে আরও মজবুত ও স্বনির্ভর করা এবং প্রাণিজ আমিষের ঘাটতি পূরণে দেশবাসীকে অধিকতর সচেতন, নিবিড়ভাবে সম্পৃক্তকরণ ও আগ্রহী করে গড়ে তোলা। এ লক্ষ্য সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থা ও পেশাজীবিসহ সকল মহলে ব্যাপক জনসচেতনতা সৃষ্টিসহ সকলের সক্রিয় অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার জন্য মৎস্য সপ্তাহ উদযাপন করা হয়।  সোমবার (৩ আগষ্ট) দিনাজপর জেলা মৎস অধিদপ্তর আয়োজিত “সাগর নদী সকল জলে, মাছ চাষে সোনা ফলে” এই শ্লোগান নিয়ে জাতীয় মৎস সপ্তাহের সমাপনী মূল্যায়ন সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ আবু রায়হান মিঞা একথা বলেন। তিনি আরো বলেন, আবহমানকাল থেকেই আমাদের সংস্কৃতি এবং ঐতিয্যের সাথে মাছ আহরণ ওতপ্রোতভাবে জড়িত। ধান আলুসহ অন্যান্য ফসল উৎপাদনে প্রাকৃতিক দূর্যোগের ফলে কৃষক সর্বশান্ত হতে পারে কিন্তু মাছ চাষ করলে লাভ ছাড়া কখনো বিপদ হবে না।
জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ হাসান ফেরদৌস সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বীরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আমিনুল ইসলাম, জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা সংকর কুমার বসাক ও বীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাসেল মনজুর। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা মৎস্য জরিপ কর্মকর্তা মোঃ ফয়জার রহমান ও বীরগঞ্জ উপজেলা সিনির মৎস্য কর্মকর্তা কালীপদ রায়।
অনুষ্ঠানে জেলায় গুণগত মানের রেণু উৎপাদনে ভূমিকা রাখায় কাহারোল উপজেলার হাতিশা গ্রামের শেখ আব্দুল হাই, কার্প মিশ্র চাষে অবদান রাখায় পার্বতীপুর উপজেলার নামা পাড়া গ্রামের মোঃ শরিফুল ইসলাম, কার্প মিশ্র চাষে অবদান রাখায় নবাবগঞ্জ উপজেলার খালিপপুর গ্রামের মাঃ জামিনুর ইসলাম এবং মনোসেক্স তেলাপিয়া উৎপাদনে ভূমিকা রাখায় ফুলবাড়ী উপজেলার পূর্ব গৌরীপাড়ার মোঃ রবিউল হাসান হেলাল কে সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়।
এছাড়াও ঢেপা নদীতে ৩ কিলোমিটার মৎস্য অভয়াশ্রম স্থাপন করায় বীরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আমিনুল ইসলাম ও বীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাসেল মনজুর এর হাতে প্রতিষ্ঠানের সম্মাননা ক্রেষ্ট তুলে দেন প্রধান অতিথি ও অনুষ্ঠানের সভাপতি।