মোঃ জাহিদ হোসেন (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুর জেলায় রেললাইনের ধারে ও আশেপাশে থাকা ভূমিহীনদের নিয়ে আলোচনা করেন দিনাজপুর জেলার শেখপুরা সদর উপজেলার শাখার প্রতিনিধি মোঃ শাহাদাত মোল্লা ও আলমগীর হোসেন। তারা ভূমিহীন নিয়ে বিভিন্ন কার্যক্রম হাতে নিয়েছে বলে জানা যায়। দিনাজপুরে দিনে দিনে ভূমিহীনের সংখ্যা বেড়েই চলছে। তারা বলেন বিভিন্ন এনজিও গুলো ভূমিহীদেন নাম করে বিভিন্ন দেশ থেকে সাহায্য সহযোগিতা নিয়ে এসে সেগুলো কাদের মাঝে বিতরন করছে তা বাংলাদেশ ভূমিহীন আন্দোলনের জানা নেই। নাকি লোক দেখানো কয়েকজনকে দিয়ে মিডিয়ার সামনে ছবি তুলে প্রচার করে বাকী অর্থ আত্মসাত করছেন বলে লোকমুখে এ ধরনের অনেক অভিযোগ পাওয়া যায়। ১৯৭৩ইং সনের ৩রা জানুয়ারী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান তার জনসভায় ভূমিহীনদের জন্য যে কর্মসূচীর ঘোষনা দিয়েছেন তাহা পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন করতে হবে বলে মন্তব্য করেন জেলা কমিটির সাধারন সম্পাদক মোঃ খোরশেদ আলম। তিনি আরও বলেন ভূমিহীনদের জন্য অন্নবস্ত্র, আবাসন, শিক্ষা ও চিকিৎসা সহ জীবন ধারণের মৌলিক উপকরনের ব্যবস্থা সরকারকে করে দিতে হবে। আমরা ভূমিহীনরা এ দেশেরই নাগরিক। আমাদের দাবী একটাই আগে ভূমিহীনদের পূর্নবাসন করতে হবে তারপর উন্নয়ন করতে হবে। সরকার ভূমিহীনদের জন্য যে কার্যক্রম গুলো হাতে নিয়েছে সেগুলো সঠিক ভাবে ভূমিহীনদের দেয়া হচ্ছে কিনা সেদিকে সরকারের নজর দেওয়া উচিৎ। সরকারের খাস জমিগুলো বড় বড় আমলাদের নামে বরাদ্দ হচ্ছে কিন্তু ভূমিহীনরা পাচ্ছে না। ভূমিহীনরা কোন সরকারী জমি বরাদ্দ নিতে গেলে অনেক হয়রানীর স্বীকার হতে হয়। ভূমিহীদের কোন মুল্যায়ন করা হয়না। প্রকৃত ভূমিহীন যারা তাদের নামে খাস জমিগুলো বরাদ্দ দিতে হবে। রেললাইনের দুইধারে থাকা এবং বস্তি এলাকায় যাদের কোন থাকার জায়গা নেই তাদের জন্য সরকারের কাছ থেকে খাস জমি বরাদ্দ নিয়ে তাদের আবাসনের ব্যবস্থা করাই হচ্ছে বাংলাদেশ ভূমিহীন আন্দোলন দিনাজপুর জেলা শাখার প্রথম দাবী। বাংলাদেশ ভূমিহীন আন্দোলন দিনাজপুর জেলা শাখা অসহায় ভূমিহীনদের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর জেলা শাখার প্রচার সম্পাদক মোঃ জাহিদ হোসেন ও সদর উপজেলা শাখার নেতাকর্মীরা।