নূর ইসলাম নয়ন (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরে পর পর ২ দিনের কালবৈশাখী ঝড়ে শত শত বিঘার ফসলি জমি নষ্ট হয়ে গেছে। বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বোরো চাষীরা। এবারে দিনাজপুরে বাম্পার বোরো ধানের আশা করা হলেও বৈরি আবহাওয়ায় তা ম্লান হয়ে গেছে। থমকে গেছে কৃষকের মুখে হাসিও।
সরেজমিনে জানা গেছে, দিনাজপুর সদর সহ ১৩ উপজেলায় ফসলের জমির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। অতিরিক্ত শিলা বৃষ্টিতে জমির ফসল ও ঘরের টিকগুলো ফুটো গেছে। অনেকেই ঘরের টিন হাওয়াতে উড়ে গেছে। দিনাজপুর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ তৌহিদুল ইকবাল কাছে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানতে চাওয়া হলে তিনি ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্দিষ্টভাবে বলতে পারেন নি।
অপরদিকে দিশেহারা হয়ে পড়েছে কৃষক। শুধু ধান নয় অন্যান্য ফসলও শিলাবৃষ্টির কারণে নষ্ট হয়ে গেছে। অনেকে ঋণ নিয়ে ফসল উৎপাদন করছিলেন। কিন্তু বৈরী আবহাওয়ার কারণে তাদের ঋণের বোঝা আরও বেড়ে গেল। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকেরা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এবং সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।