(দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলায় এসকে রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের ১২ জন শিক্ষার্থী এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারছে না। চিরিরবন্দর থানার ওসি হারেসুল ইসলাম বলেন, জনরোষ থেকে বাঁচাতে এসকে রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের পরিচালক নিঞ্জন রায় এবং সিঙ্গানগর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অজয় রায়কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সারা দেশে অভিন্ন প্রশ্নে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

পরীক্ষায় অংশ নিতে না পরা শিক্ষার্থী মাসুদ রানা ও মানস রায় বলেন, চিরিরবন্দরের ভুষিরবন্দরে অবস্থিত এসকে রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের ১২ জন এসএসসি পরীক্ষার্থী ওই স্কুলের নিবন্ধন না থাকায় একই উপজেলার সিঙ্গানগর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে রেজিস্ট্রেশন করেন এবং যথারীতি এসএসসির ফরম পূরণ করেন। কিন্তু তাদেরকে যথাসময়ে প্রবেশপত্র দেয়া হয়নি।

ওই শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, পরীক্ষার আগেরদিন (বুধবার) তাদের জানানো হয় পরীক্ষার দিন সকালেই তাদেরকে প্রবেশপত্র দেয়া হবে। কিন্তু বৃস্পতিবার সকালে পরীক্ষার্থীরা প্রবেশপত্র নিতে গেলে এসকে রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের পরিচালক নিঞ্জন রায় তাদের প্রবেশপত্র আসেনি বলে জানিয়ে দেন।

ওসি হারেসুল ইসলাম বলেন, প্রবেমপত্র না পাওয়ার বিষয়টি শিক্ষার্থীরা অভিভাবকদের জানালে এলাকার লোকজন প্রতিষ্ঠানে আসলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। “জনরোষ থেকে রক্ষায় নিরঞ্জন রায় ও অজয় রায়কে গ্রেপ্তার করে থানায় আনা হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।”