(দিনাজপুর২৪.কম)  দিনাজপুরের বীরগঞ্জে মোছা. বুলবুলি খাতুন (৩২) নামে এক গৃহবধূর হাত-পা বেঁধে মুখ টেপ দিয়ে বন্ধ করার পর এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করেছে পাষন্ড স্বামী। এ ঘটনার পর থেকে স্বামী মো. রিপন ইসলাম (৪২) পলাতক রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার ভোর সাড়ে ৩টার দিকে বীরগঞ্জের শতগ্রামে। আহত বুলবুলি খাতুন দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার শতগ্রাম ইউনিয়নের শতগ্রাম এলাকার মো. নুরুল ইসলামের মেয়ে।আহত গৃহবধূ বুলবুলির বাবা মো. নুরুল ইসলাম জানান, প্রায় ১২ বছর আগে ঢাকায় গার্মেন্টেসে কাজ করতে গিয়ে বরিশালের কালাই মুধা পথ গ্রামের মো. আশরাফুল ইসলামের ছেলে রিপন ইসলামকে ভালবেসে বিয়ে করে বুলবুলি। বিয়ের পর থেকে মেয়ে-জামাই তার কাছে থাকে। তাদের পরিবারে দুই ছেলে সন্তান রয়েছে। কিছুদিন থেকে কারণে অকারণে তাদের সংসারে ঝগড়া বিবাদ লেগেই আছে। সোমবার ভোর সাড়ে ৩টায় বুলবুলির হাত-পা বেঁধে মুখ টেপ দিয়ে বন্ধ করার পর এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করেছে পালিয়ে যায় রিপন। তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে তাৎণিক ইউনিয়ন স্বাস্থ্য উপকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়।
শতগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. কেএম কুতুব উদ্দিন জানান, গৃহবধূ এখনো অজ্ঞান অবস্থায় রয়েছে।