(দিনাজপুর২৪.কম) দলীয় প্রভাব বিস্তার, ব্যালট বাক্স ছিনতাই, বিএনপি’র নেতাকর্মীদের ভয়-ভীতি প্রদর্শন বন্ধসহ একটি অবাধ-সুষ্ঠু-নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য জেলা নির্বাচন অফিসার ও জেলা রিটার্নিং অফিসার এবং পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে দিনাজপুর পৌরসভার ১১নং ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষ্যে জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার ও জেলা রিটার্নিং অফিসারসহ দিনাজপুর পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী মো. শাহাদত হোসেন। বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) বিকেলে জেলরোডস্থ দিনাজপুর জেলা বিএনপি কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবী করেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে শাহাদত হোসেন আরো বলেন, গণতন্ত্রের স্বার্থে আমার ভোট আমার পছন্দের প্রার্থীকে দেব, এটাই আমার প্রত্যাাশা। এলাকাবাসীর স্বার্থে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন প্রয়োজন। আগামী ২০ অক্টোবর দিনাজপুর পৌরসভার ১১নং ওযার্ডের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য মনোনয়নপত্র দাখিল করার পর আমার প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীর পক্ষ থেকে সরকার দলীয় কর্মীবাহিনী দ্বারা মিথ্যা মামলাসহ প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করা হয়। গত ১৪ই অক্টোবর জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার ও জেলা রিটার্নিং অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছিলাম কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন আইনী সহায়তা পায়নি। আমার প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী মো. সানোয়ার হোসেন নির্বাচন কমিশন কর্তৃক পৌরসভা নির্বাচনী আচরণ বিধি প্রতিনিয়ত লঙ্গন করেছেন। এহেন অবস্থায় নির্বাচন কতটুকু অবাধ ও সুষ্ঠু হবে এ ব্যাপারে তিনি সংশয় প্রকাশ করেন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির আহবায়ক আলহাজ¦ এজেডএম রেজওয়ানুল হক, যুগ্ম আহবায়ক আলহাজ¦ রেজিনা ইসলাম, আলহাজ¦ মো. লুৎফর রহমান মিন্টু, মো. মোকাররম হোসেন, আখতারুজ্জামান জুয়েল, এ্যাড. আনিসুর রহমান চৌধুরী, বখতিয়ার আহম্মেদ কচি সহ জেলা বিএনপির নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।